/* */
   Friday,  Sep 21, 2018   7 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

পঙ্কজ শরণ স্থলসীমান্ত চুক্তি মোদির ঢাকা সফরে আসার সুযোগ সৃষ্টি করেছে

তারিখ: ২০১৫-০৬-০৫ ১৯:৪১:৩৬  |  ৩২০ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

 (বাসস) : ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার পঙ্কজ শরণ বলেছেন, দীর্ঘ প্রতিক্ষিত স্থলসীমান্ত চুক্তি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরে আসার পথ সুগম করেছে।
ভারতীয় হাইকমিশনার শরণ মোদির ঢাকায় দু’দিনের সফরের প্রাক্কালে সংবাদ সংস্থা বাসস’র সঙ্গে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফর খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি বলেন, আমি মনে করি এটি সম্ভব হয়েছে আমাদের লোকসভায় স্থলসীমান্ত চুক্তি (এলবিএ) এবং এর ২০১১ প্রটোকল অনুমোদন করায়। এটি ছিল আমাদের সরকারের একটি ঐতিহাসিক পদক্ষেপ।
তিনি বলেন, আমার ধারণা স্থলসীমান্ত চুক্তি অনুমোদনে লোকসভায় সর্বসম্মতভাবে ভারতের সংবিধানের সংশোধনীর পর মোদির বাংলাদেশ সফরের জন্য এর চেয়ে আর ভাল কিছু হতে পারে না।
ভারতের এই দূত এমন সময়ে এই মন্তব্য করলেন, যখন ঢাকা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ঊষ্ণ অভ্যর্থনা জানাতে প্রস্তুত। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে কাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে ১৯ বার তোপধ্বনি ও লালগালিচা সংবর্ধনা দেয়া হবে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। এর আগে ২০১১ সালে ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ ঢাকা সফর করেন। এটিই ছিল কোন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর সর্বশেষ ঢাকা সফর।
শরণ বলেন, গত কয়েক বছরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। দু’দেশের মধ্যে সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র তৈরিতে যা অবদান রাখছে। দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নে পরিবেশ সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখছে।
শরণ আরো বলেন, ভারতের নতুন সরকারের সঙ্গে প্রতিবেশী দেশগুলোর চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে। বিষয়টি পরিষ্কার ভারতের বর্তমান সরকার এই সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ট করতে চায়। প্রতিবেশী দেশগুলোতে প্রধানমন্ত্রী মোদির সফর দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ট করার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার শরণ বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সম্পর্কের একটি।
ঢাকার সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে কিনা এ সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় দূত বলেন, ভারতের পাঁচটি রাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের সীমান্ত রয়েছে। বাংলাদেশ বঙ্গোপসাগরের একটি কৌশলগত দেশ। দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশের সংযোগ সড়ক বাংলাদেশের উপর দিয়ে গেছে। বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক উন্নয়নের প্রভাব শুধুমাত্র দেশটির কল্যাণ ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রে নয়, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এসব কারণে ভারতের কাছে বাংলাদেশের কৌশলগত গুরুত্ব অনেক।
তিনি বলেন, আমি মনে করি, আমাদের দু’দেশের সম্পর্ক খুবই ঘনিষ্ট। আমরা আমাদের সম্পর্ক অন্যের চোখে দেখি না।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরকালে কোন বাণিজ্য চুক্তি হবে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে শরণ বলেন, লম্বা এজেন্ডা রয়েছে। আমি নিশ্চিত দুই নেতার বৈঠকে সকল বিষয় আলোচনা হবে। তবে চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য সফর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।
তবে তিনি বলেন, দুই নেতা যখন বৈঠকে বসবেন, তখন নতুন নির্দেশনা আসবে এবং সম্পর্কের নতুন ক্ষেত্র সৃষ্টি হবে। এ ক্ষেত্রে সহযোগিতার আরো সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমরা ইতোমধ্যেই খুবই আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি এবং যেসকল বিষয়ে আমাদের মধ্যে মতভিন্নতা ছিল, সে সকল বিষয়ে অগ্রগতি হচ্ছে। ফলে আসন্ন এই সফর থেকে আমরা ভাল কিছু আশা করতে পারি।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•কালকিনিতে ডিকে আইডিয়াল কলেজের হোস্টেল সিট বরাদ্দের অনিয়মের অভিযোগ ছাত্রদের অনশন। •আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের উম্মুক্ত বাজেট ঘোষণা •আমতলীতে ৫ বিশিষ্ট ব্যক্তির স্মরণ সভা। •পরমাণু বিজ্ঞানী এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী কাল • (জ্যাক) এর বিজ্ঞপ্তি , সাংবাদিক গাজী রহমত উল্লাহ. বহিস্কার •শোক সংবাদ গোলাম মোস্তফা • ঝিনাইদহে খালার সঙ্গে অভিমানে স্কুল শিক্ষার্থীর বিষপানে আত্মহত্যা •শৈলকুপায় আবারো বাবা-মাকে মারধর ও খেতে না দেওয়ায় উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document