/* */
   Friday,  Jun 22, 2018   00:02 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা •প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরে গঠিত হতে পারে : ওবায়দুল কাদের
Untitled Document

অপহৃত বিজিবি সদস্যের সঙ্গে অমানবিক আচরণ

তারিখ: ২০১৫-০৬-২০ ১৪:১১:৪০  |  ২৩৪ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

কক্সবাজার অফিস: কক্সবাজারের টেকনাফে নাফ নদী থেকে অপহৃত বিজিবি সদস্য নায়েক রাজ্জাকের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছে মিয়ানমার। বিনা চিকিৎসায় আহত এই বিজিবি সদস্যকে হাতকড়া পরিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। যা আন্তর্জাতিক রীতিনীতির পরিপন্থি এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সনদের চরম লঙ্ঘন বলে এর কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজিবি। এদিকে অপহৃত বিজিবি সদস্যকে গতকাল শুক্রবারও ফেরত দেয়নি মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি।
টেকনাফে বিজিবি ৪২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু জার আল জাহিদ জানিয়েছেন, মিয়ানমারে আটক বিজিবি সদস্যকে ফেরত আনার বিষয়ে পতাকা বৈঠকের জন্য বারবার প্রস্তাব পাঠানো হলেও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ এতে সাড়া দেয়নি। শুক্রবার যে কোনো সময় পতাকা বৈঠক হতে পারে বলে আগে জানানো হয়েছিল।
বিজিবি
অধিনায়ক বলেন, এর আগে বৃহস্টপতিবার সকাল ১০টায় টেকনাফ স্থলবন্দর রেস্ট হাউসে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ওই বৈঠকে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বিজিপির হেফাজতে থাকা নায়েক রাজ্জাককে ফেরত দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মিয়ানমারের পক্ষ থেকে বৈঠকের ব্যাপারে এ পর্যন্ত সবুজ সংকেত মেলেনি।
মিয়ানমারে আটক বিজিবির নায়েক রাজ্জাকের একটি ছবি ইন্টারনেটে প্রকাশ করেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি। তাকে মিয়ানমারের একটি সীমান্ত ক্যাম্পে হাতকড়া পরানো অবস্থায় আটকে রাখা হয়েছে। ছবিতে দেখা গেছে নায়েক রাজ্জাকের মুখমণ্ডলে রক্তের দাগ। তার সামনে রাখা আছে একটি এম ২২ রাইফেল, গুলি, ৪টি মোবাইল সেট, একটি দা, একটি ছুরি ও দুটি টর্চলাইট।
একটি দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যকে নির্যাতন ও বিনা চিকিৎসায় হাতকড়া পরিয়ে এভাবে আটকে রাখা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন এবং এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজিবি।
গত বুধবার সকালে নাফ নদীতে বাংলাদেশের জলসীমায় মৎস্য শিকাররত দুটি নৌকায় তল্লাশি চালায় ওই এলাকায় টহলরত বিজিবির একটি দল। এ সময় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি পূর্বদিক থেকে একটি ট্রলারে এসে বিজিবির টহল দলের নৌকায় বেপরোয়া গুলি চালায়। এতে বিজিবির সিপাহী বিপ্লব কুমার (২১) গুলিবিদ্ধ হন। একপর্যায়ে আহত বিপ্লব কুমারকে নিয়ে বিজিবি দল নিরাপদ অবস্থানে সরে এলেও নায়েক আবদুর রাজ্জাককে অপহরণ করে নিয়ে যায় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •বিপন্ন রোহিঙ্গারা স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা পাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী •নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচিতে বিশ্ব ব্যাংকের অতিরিক্ত ২৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদানের চুক্তি স্বাক্ষর মঙ্গলবার •রাষ্ট্রের তিন বিভাগের মধ্যে ঐক্যের আহ্বান রাষ্ট্রপতির •দেশের ইতিহাসে রংপুর সিটি নির্বাচন অন্যতম সেরা : ইডব্লিউজি •ফারমার্স ব্যাংক থেকে মহীউদ্দীন আলমগীরের পদত্যাগ বেসিক ব্যাংকের দুই সাবেক পরিচালককে জিজ্ঞাসাবাদ •বাংলাদেশে ৮ লাখ ১৭ হাজার রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে : আইওএম •রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দশ হাজার লেট্রিন নির্মাণ করে দিবে ইউনিসেফ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document