/* */
   Tuesday,  Dec 11, 2018   9 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

২১ সালে আউটসোর্সিংয়ে এক নম্বর হবে বাংলাদেশ

তারিখ: ২০১৫-০৬-২৫ ১৫:৩২:৫২  |  ৩১৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

নিজস্ব প্রতিবেদক: তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্বে এক নম্বর আউটসোর্সিং দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত (২০১৫-১৬) অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকারের দূরদর্শী চিন্তাভাবনার কারণে টেলিকমিউনিকেশন সেক্টরে উন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্বের ৫ বৃহৎ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে সক্ষম হয়েছি। আগামী ২০১৮ সালের মধ্যে আইসিটি খাত থেকে এক বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ সারা বিশ্বের কাছে শ্রমনির্ভর অর্থনীতির দেশ হিসেবে পরিচিত। তাই আমাদের তরুণ প্রজন্মকে কাজে লাগিয়ে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে দৃষ্টান্ত স্থাপনের করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।

বর্তমানে প্রতিবছর ১১৮টি  বিশ্ববিদ্যালয়ের মাধ্যমে ২০ হাজার আইটি গ্রাজুয়েট বের করা হচ্ছে। সরকার ৫ হাজার ২৭৫টি ডিজিটাল সেন্টার নির্মাণের মাধ্যমে ১১ হাজার তরুণ-তরুণীকে চাকরি দিয়ে বিশ্বের কাছে নজির স্থাপন করার উদ্যোগও গ্রহণ করেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে দেশে ১২ কোটি ৪৭ লাখ মোবাইল ব্যবহারকারী রয়েছে, যা  মোট জনসংখ্যার ৮১ শতাংশ। এ ছাড়া চার কোটি ৪২ লাখ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী। চার হাজার ৫৪৭টি ইউনিয়ন ডিজিটাল কেন্দ্র (ইউডিসি) এবং ৩৮৭টি পৌরসভা ডিজিটাল কেন্দ্র (পিডিসি) নির্মাণ করা হয়েছে। সারা দেশে ৫ হাজার ২৭৫টি আইটি ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। গত ৭ বছরে সাড়ে সাত লাখ আইটি পেশাজীবী তৈরি হয়েছে। বর্তমানে দেশের আইটি সেক্টরের ১ হাজার কোম্পানি দেশে-বিদেশে কাজ করছে।

তিনি বলেন, ১২টি আইটি পার্ক নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সবগুলো বিভাগীয় শহরে আইটি পার্ক নির্মাণ করা হবে। পর্যায়ক্রমে সব জেলা শহরে নির্মাণ করা হবে একটি করে হাইটেক পার্ক।

তিনি আরো বলেন, সরকার ৫৫ হাজার ব্যক্তিকে ফ্রিল্যান্সিং ট্রেনিং দেওয়া হয়েছে।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের দাম এত বেশী কেন? •মাত্র পাঁচ মিনিটে স্মার্ট ফোন চার্জ করা যাবে! •ফেসবুক ব্যবহারে সারা পৃথিবীতে দু'নম্বরে ঢাকা •এক হলো রবি-এয়ারটেল •বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নির্মাণের অর্ধেক কাজ সমাপ্ত. তারানা হালিম। •বিঘ্নিত হতে পারে ইন্টারনেট সেবা •পৌ‌নে ২ ঘণ্টা সময় দিলেন প্র‌তিমন্ত্রী তারানা হা‌লিম। •সিম নিবন্ধন, শেষ সময় ৩০ এপ্রিল রাত ১০টা তারানা হালিম
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document