/* */
   Thursday,  Jun 21, 2018   11 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা •প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরে গঠিত হতে পারে : ওবায়দুল কাদের
Untitled Document

নগ্ন ছবি ফাঁসে ক্ষুব্ধ প্রীতি

তারিখ: ২০১৫-০৬-২৯ ১১:২৫:১৩  |  ২৯১ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

বিনোদন ডেস্ক: চরিত্রের প্রয়োজনে ক্যামেরার সামনে নগ্ন হওয়া এখন আর নতুন কিছু নয়। সাহসী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নগ্ন হচ্ছেন অনেক অভিনেত্রীই। বিষয়টি নিয়ে রাখঢাক করার অবশ্য তেমন কিছু নেই। তবে কারো নগ্ন ছবি যদি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তা একটু অস্বস্তিকর বটে!
 
সম্প্রতি নিজের বেশ কয়েকটি নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় নতুন করে সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি গুপ্ত। ওই ছবিগুলো মূলত সমকামিতা নিয়ে তার অভিনীত ‘আনফ্রিডম’ সিনেমার স্ক্রিনশর্ট।
 
ফায়েজ আহমেদ ফায়েজের কবিতা ‘ইয়ে দাগ দাগ উজালা’ অবলম্বনে নির্মিত ‘আনফ্রিডম’ সিনেমাটিকে বলা হচ্ছে সমকালীন থ্রিলার। এক নারী সমকামী যুগলকে ঘিরে তৈরি সিনেমাটিতে যৌন উদ্দীপক উপাদান থাকার অভিযোগে এটি ভারতে নিষিদ্ধ হয়েছে।
 
এসব বিষয় নিয়ে ‘হিন্দুস্তান টাইমসের’ সঙ্গে কথা বলেছেন বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি গুপ্ত। দৈনিকটিতে রোববার এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।
 
নগ্ন ছবি ফাঁস হওয়া নিয়ে প্রীতি বলেন, ‘এটি সত্যি যে অভিনেতা-অভিনেত্রীরা সমালোচনার যোগ্য। তবে ফাঁস হওয়া ওই ছবিগুলোর ব্যাপারে সত্যিই আমি দারুণ ক্ষুব্ধ হয়েছি।’
 
তার মতে, ‘বিষয়টি উদ্ভট ও গোপনীয়তা ভঙ্গের শামিল। আর কোনো কিছু নিষিদ্ধ করতে হলে এ ধরনের কাজকেই করা উচিত।
 
এ ছবিটি প্রসঙ্গে প্রীতি বলেন, ‘সিনেমা নিষিদ্ধ করার বিষয়টিকে আমার হাস্যকর মনে হয়। কোনো সিনেমাকে নিষিদ্ধ কেন করা হবে?’
 
কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন রেখে বলিউডে সদ্য পা রাখা প্রীতি বলেন, ‘আপনি কি দর্শকের মেধাকে বিশ্বাস করেন না? মূলত বার্তাটি পৌঁছে দেওয়ার জন্যই সিনেমাটি দেখা দরকার। আমরা সবাই প্রাপ্তবয়স্ক এবং আমাদের কোনো ছবির বিষয়বস্তুকে বিচার করার সুযোগ থাকতে হবে। আর সমকামিতা বিষয়টি খুবই স্বাভাবিক; এটা আর এমন কী?’
 
এ সিনেমাটিকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ আখ্যা দিয়ে ‘কাহানি ঘর ঘর কি’ সিরিয়ালের এ অভিনেত্রী বলেন, ‘এতে দুটি গল্প রয়েছে যার মধ্যে আমার নিজের একটিও রয়েছে।’
 
প্রীতি গুপ্ত বলেন, ‘কিভাবে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মধ্যে সমকামিতা চলে আসছে, সিনেমাটিতে তাই তুলে আনা হয়েছে। তবে সমাজের উঁচুশ্রেণির মানুষেরা এর বিষয়বস্তু নিয়ে ভিন্নকিছুও ভাবতে পারেন।’


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হবে ৮ জুলাই •রাজনীতিতে এলেন তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত •অপু বিশ্বাসকে তালাকনামা পাঠিয়েছেন শাকিব খান •দেশের ইতিহাস সংস্কৃতিকে তুলে ধরে উন্নত ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণ করুন : প্রধানমন্ত্রী •জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত শ্রেষ্ঠ গীতিকার আমিরুলের স্বপ্ন ছোঁয়ার গল্প •সংস্কৃতিচর্চাই আমৃত্যু মনোবলে বলিয়ান বর্ষিয়ান নাট্যপুরুষ নান্নু' •বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী লাকী আখন্দের মৃত্যু •সৌদি আরবে তৈরি হবে বিশাল 'বিনোদন নগরী
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document