/* */
   Tuesday,  Dec 11, 2018   03:38 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

এক লাখ টন সোনার সন্ধান

তারিখ: ২০১৫-০৭-০৬ ১৪:৫৭:০২  |  ২৭৩ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

নিউজ ডেস্ক: এক লাখ টন সোনার সন্ধান পেলেন ভারতের ভূ-তত্ত্ববিদরা। ঝাড়খন্ডের রাজধানী রাঁচির খুব কাছে তমার এলাকায় সোনার এই বিপুল ভান্ডারের সন্ধান পেয়েছে জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া।

ঝাড়খন্ডের মাটির নিচে বিপুল পরিমাণ সোনা মজুত থাকার বিষয়টি আরো আগে থেকেই টের পাওয়া যাচ্ছিল। এর আগেও একবার এই বিপুল সোনা মজুত থাকা ব্যাপারটি সামনে এসেছিল। কিছুদিন আগেও জিএসআই পরীক্ষা চালিয়ে তমারের মাটির নিচে বিপুল পরিমাণ সোনা থাকার লক্ষণ পেয়েছিল। এবার দ্বিতীয়বার সেই সম্ভাবনাটি আরো প্রকটভাবে দেখা দেওয়ায় অনেকটাই নিশ্চিত হয়েছে জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া।

জিএসআই বিজ্ঞানীদের ধারণা, ওই এলাকায় মাটির নিচে কমপক্ষে এক লাখ টন সোনা মজুত রয়েছে। যার আনুমানিক বাজারমূল্য ২৫ হাজার কোটি রুপি। মাটি খননের ভাবনাও শুরু করেছেন তারা। বর্ষা কেটে গেলেই খনন শুরু হবে তমারের ওই এলাকায়। খননকার্য চলবে সম্ভাব্য স্থানের পাঁচ বর্গকিলোমিটার জুড়ে।

ঝাড়খন্ডের প্রাক্তন ভূ-তত্ত্ব নির্দেশক জেপি সিংয়ের দাবি, জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া প্রাথমিক রিপোর্ট দিয়েছে। চূড়ান্ত রিপোর্ট দিলেই খননকাজে হাত দেবে সরকার। প্রাথমিক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, রাঁচির কাছে তমারসংলগ্ন সিঁন্দুরি, লুঙ্গট, হেপসেল ও পরাসি এলাকায় মাটির নিচে রয়েছে সোনার অফুরন্ত ভান্ডার।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•দ. কোরিয়ার অর্থমন্ত্রী ও প্রধান নীতি নির্ধারক বরখাস্ত •যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনের পর ট্রাম্পের প্রশংসা জাপানের অ্যাবের •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •২০২৪ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার উন্নয়ন পরিকল্পনা ‘মে ডিক্রি’ স্বাক্ষর পুতিনের •মেক্সিকোর জন্যে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী বছর ২০১৭ •ইসরাইল-ফিলিস্তিন সমঝোতা প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করতে জাতিসংঘে রাশিয়ার আহবান •রোহিঙ্গা সংকটের টেকসই সমাধানে নমপেনের সহযোগিতা কামনা ঢাকার •মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে সম্মত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document