/* */
   Thursday,  Oct 18, 2018   3 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

মহাবিশ্বে আমরা নই একা

তারিখ: ২০১৫-০৭-২৬ ১৫:০৯:১৪  |  ২১১ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

নিউজ ডেস্ক: বিপুলা ধরণীর নতুন আবিষ্কৃৃৃত জ্ঞাতি বোন 'আর্থ টু পয়েন্ট জিরো' নামের গ্রহটিকে 'হ্যালো' বলে ফেলুন! কেপলারের অনুসন্ধান আমাদের ভাবার সুযোগ করে দিচ্ছে যে, মহাবিশ্বে আমরা নই একা। হ্যাঁ, কেপলার ৪৫২বি নামটি মনে রাখুন ভালোভাবে। আগামী দিনগুলোতে এর আরও উন্মোচনের ওপরই নির্ভর করছে এই প্রশ্নের উত্তর যে সীমাহীন ও সৌন্দর্যমণ্ডিত মহাবিশ্বে পৃথিবীই একমাত্র জীবনপূর্ণ গ্রহ কি-না। এই পৃথিবীর আরও প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছে কি-না।
মহাকাশ অনুসন্ধানের ইতিহাসে এই প্রথমবার বিজ্ঞানীরা এমন একটি গ্রহ খুঁজে পেয়েছেন যেটাকে আপাতদৃষ্টিতে পাথুরে বলেই মনে হচ্ছে এবং আমাদের সূর্যের চারদিকে পৃথিবী যে দূরত্বে ঘুরছে, সেটাও তার সূর্যের চারদিকে প্রায় একই দূরত্বে আবর্তিত হচ্ছে। এর আগে অন্য যত 'বসবাসযোগ্য' পৃথিবীর খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল, তার মধ্যে এটাকেই হাততালি সহযোগে আরেকটি পৃথিবী হিসেবে প্রাথমিকভাবেই ধারণা করা যাচ্ছে। পাঠক-পাঠিকা, এটা আসলেই বাস্তব হতে পারে! নাসার কেপলার স্পেস টেলিস্কোপের মাধ্যমে খুঁজে পাওয়া কেপলার ৪৫২বি আমাদের এই পৃথিবী থেকে ১৪শ' আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। এটি এমন একটি সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে, যা আমাদের সূর্যের চেয়ে ১০ গুণ বেশি উজ্জ্বল ও ৪ গুণ বেশি বড়। খোদ গ্রহটিও আমাদের পৃথিবীর চেয়ে ১ দশমিক ছয় গুণ বড়_ বলা চলে 'সুপার আর্থ'। অবশ্য সংশ্লিষ্ট সূর্যের আকার ও ধরন বিবেচনায় বিজ্ঞানীরা এখনও নিশ্চিত নন যে, এটার পাথুরে ভূপৃষ্ঠ আমাদের মতোই পাথুরে। বলা বাহুল্য, নতুন পৃথিবী সম্পর্কে এখনই নিশ্চিত করে সব বলা ঠিক হবে না। কিন্তু যে ছবি পাওয়া যাচ্ছে, তাতে স্পষ্ট বোঝা যায়, ভূপৃষ্ঠে এখনও সক্রিয় আগ্নেয়গিরি রয়েছে অনেক। অবশ্য একই সঙ্গে মনে রাখতে হবে, যে সূর্যকে ঘিরে নতুন পৃথিবী আবর্তন করছে, তা আমাদেরটার চেয়ে দেড়শ' কোটি বছর পুরনো। অন্যদিকে সেই সূর্য থেকে যে তাপ নতুন দেখা পৃথিবীতে এসে পড়ে, তাতে এর মহাসাগরগুলো বাষ্পীভূত হয়ে যাওয়ার কথা। ফলে যদি ওই পৃথিবী এখন বসবাসযোগ্য নাও হয়, এর মধ্য দিয়ে এটা বোঝা যাবে যে, আমাদের সূর্যের ওই বয়সে গিয়ে অর্থাৎ দেড়শ' কোটি বছর পর আমাদের পৃথিবীর কী পরিস্থিতি দাঁড়াতে পারে। এখন ওই পৃথিবী যে অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, ভবিষ্যতে আমাদের পৃথিবীকেও সেই অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। গত চার বছরে কেপলার টেলিস্কোপ যে পাঁচ শতাধিক গ্রহের দিকে নজর দিয়েছে, নতুন পৃথিবী তার একটি। এর মধ্যে যে ১২টি গ্রহ তাদের সূর্যের 'বসবাসযোগ্য দূরত্বে' প্রদক্ষিণ করছে, সেগুলো আমাদের পৃথিবীর অর্ধেক মাপের। সবদিক থেকে গ্রহও বলা চলে না। কেপলার ৪৫২বি হচ্ছে প্রথম যেটাকে গ্রহ বলা যায়, বসবাসযোগ্য দূরত্বে প্রদক্ষিণ করছে এবং আকারে-প্রকারে আমাদের পৃথিবীর কাছাকাছি। আর কিছু না হোক, আমাদের পৃথিবীর এই জ্ঞাতি বোন আশা জাগিয়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে যে, সে নিজে আমন্ত্রণ জানাতে না পারুক; বসবাসযোগ্য আরেকটি পৃথবীর জন্য আমাদের পথ দেখাতে পারে। অন্তত এই আশা জাগিয়ে রাখতে পেরেছে যে, আমরা মহাবিশ্বে একা নই। যে 'হ্যালো' আমরা পৃথিবী থেকে 'আর্থ টু পয়েন্ট জিরো' লক্ষ্য করে পাঠালাম, সেটা পাল্টা 'হ্যালো' হিসেবে সেখান থেকে ফিরে না আসুক; এখনও অজানা মহাবিশ্বের অন্য কোনো অংশ থেকে আসতে পারে। অন্য কেউ প্রত্যুত্তর দিতে পারে। আজ না হোক কাল, কাল না হোক পরশু। সবিজ্ঞানবিষয়ক লেখক; আইএফএল সায়েন্স থেকে সংক্ষেপে ভাষান্তরিত


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব কিছু করা হবে : তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী •অনলাইন ব্যবহারে শিশুদের ঝুঁকি বাড়ছে: ইউনিসেফ •সজিব ওয়াজেদ জয়ের দিক নির্দেমনায় কাজ করছি আমরা ভ্রাম্যমান কম্পিউটা গাড়িতে প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ •মন্ত্রিসভায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচালনা কোম্পানি অনুমোদন • উড়ন্ত গাড়ি' আসছে তৈরি হবে জাপানে •ভয়েস মেইল সার্ভিস উদ্বোধন করলেন জয় •সরকার নিজেদের কাজকর্ম ফেসবুকে তুলে ধরছে পলক • বেসরকারি মোবাইল অপারেটরগুলোর অবদানকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document