/* */
   Saturday,  Jun 23, 2018   00:28 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •নাশকতার মামলায় শেখ হাসিনা উইমেন্স কলেজের প্রভাষক গ্রেফতার। •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা
Untitled Document

২২ হাজার কোটি টাকার খেলাপি ঋণ

তারিখ: ২০১৫-০৮-১৬ ১৩:৩০:০৮  |  ১৩৫ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

অর্থঋণ আদালতে মামলায় আটকে আছে রাষ্ট্রীয় মালিকানার চারটি বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকার খেলাপি ঋণ। বছরের পর বছর ধরে হাজার হাজার মামলা নিষ্পত্তি না হওয়াতে এ অবস্থা। এত বড় অঙ্কের অর্থ আটকে থাকায় ব্যাংকগুলো মূলধন সংকটসহ নানামুখী সমস্যায় পড়ছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা দেওয়া ব্যাংকগুলোর সর্বশেষ মার্চভিত্তিক প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, রাষ্ট্রীয় মালিকানার চার বাণিজ্যিক ব্যাংকের ১৬ হাজার ৫৯০টি মামলার বিপরীতে আটকে আছে ২১ হাজার ৯৩৫ কোটি টাকা। তিন মাস আগে গত ডিসেম্বর শেষে অর্থঋণ আদালতে ১৬ হাজার ৩৯১টি মামলা ছিল। আর আটকে ছিল ২১ হাজার ৪৭৬ কোটি টাকা।
অর্থঋণ আদালতে করা মামলার দীর্ঘসূত্রতা নিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নিজেও উদ্বিগ্ন। এ ধরনের মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ নিতে তিনি গত বছর আইন মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি দেন। চিঠিতে প্রয়োজনে দ্রুত এসব মামলা নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেওয়ার অনুরোধ করেন। তবে দৃশ্যত এ নিয়ে কোনো উদ্যোগ এখনও দেখা যায়নি।
প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এ সময়ে চার ব্যাংকেরই অর্থঋণ আদালতে করা মামলার সংখ্যা ও আটকে থাকা অর্থের পরিমাণ বেড়েছে। সবচেয়ে
বেশি অর্থ আটকে আছে সোনালী ব্যাংকের। মামলার সংখ্যায় বেশি রয়েছে অগ্রণীর। তবে মামলা নিষ্পত্তি হচ্ছে খুব কম। গত জানুয়ারি-মার্চ সময়ে মাত্র ২৭৩টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। যার বিপরীতে ১৯৭ কোটি টাকার খেলাপি ঋণ ছিল। আগের তিন মাসে ২৪২টি মামলার বিপরীতে নিষ্পত্তি হয়েছিল ৩৪৯ কোটি টাকা।
রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম. ফরিদ উদ্দিন বলেন, খেলাপি ঋণ আদায়ে অর্থঋণ আদালতে মামলা করা হচ্ছে। নানা জটিলতার কারণে তা নিষ্পত্তিতে দীর্ঘসূত্রতা দেখা দেয়। এ ছাড়া অর্থঋণ আদালতে মামলা নিষ্পত্তির পর গ্রাহক আবার উচ্চ আদালতে রিট করে অর্থ আদায় প্রক্রিয়া ঝুলিয়ে দেয়। তিনি জানান, গ্রাহক ঋণ নেওয়ার সময় জামানতকৃত সম্পত্তির পাওয়ার অব অ্যাটর্নি ব্যাংককে দেয়। তবে আইনি বাধার কারণে মামলা নিষ্পত্তি ছাড়া সম্পত্তি বিক্রি করা যায় না। অথচ যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে জামানতকৃত সম্পত্তি বিক্রির ক্ষেত্রে সরাসরি ব্যাংকের ক্ষমতা রয়েছে। খেলাপি ঋণ কমাতে হলে বাংলাদেশে বিদ্যমান আইন সংশোধন করে সম্পত্তি বিক্রির ক্ষমতা সরাসরি ব্যাংককে দিতে হবে বলে মনে করেন তিনি।
প্রতিবেদনে দেখা যাচ্ছে, গত মার্চ শেষে সোনালী ব্যাংকের তিন হাজার ৪৭০টি মামলার বিপরীতে আটকে আছে ৯ হাজার ৭৯০ কোটি টাকা। গত ডিসেম্বর শেষে তিন হাজার ৪৪৩টি মামলার বিপরীতে আটকে ছিল ৯ হাজার ৬০৩ কোটি টাকা। অগ্রণী ব্যাংকের ৭ হাজার ১১০টি মামলার বিপরীতে আটকে আছে ৬ হাজার ৮৮৩ কোটি টাকা। আগের প্রান্তিকে ৬ হাজার ৯৯৬টি মামলার বিপরীতে ৬ হাজার ৭২৪ কোটি টাকা আটকে ছিল। জনতা ব্যাংকের তিন হাজার ৩০৯টি মামলার বিপরীতে ৪ হাজার ৩১ কোটি টাকা আটকে আছে। ডিসেম্বর শেষে তিন হাজার ২৭৬টি মামলার বিপরীতে ছিল তিন হাজার ৯৭০ কোটি টাকা। এ ছাড়া রূপালী ব্যাংকের ২ হাজার ৭০১টি মামলার বিপরীতে এক হাজার ২৩০ কোটি টাকা আটকে আছে। আগের প্রান্তিকে দুই হাজার ৬৭৭টি মামলার বিপরীতে আটকে ছিল এক হাজার ১৭৯ কোটি টাকা।
মামলায় আটকে থাকা এসব খেলাপির বাইরে গত মার্চ শেষে চার ব্যাংকের খেলাপি ঋণ রয়েছে ১৭ হাজার ৫৭৪ কোটি টাকা। ডিসেম্বর শেষে যা ছিল ১৬ হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা। কোনো গ্রাহক খেলাপি হওয়ার নির্দিষ্ট সময় পর কিছু প্রক্রিয়া অনুসরণ শেষে বাধ্যতামূলকভাবে ব্যাংকগুলোকে অর্থঋণ আদালতে মামলা করতে হয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বছরের পর বছর এ ধরনের মামলা চালাতে হয়। ফলে অনেক ক্ষেত্রে যে পরিমাণ অর্থ আদায়ের জন্য ব্যাংক মামলা করে, মামলা পরিচালন ব্যয় হয় তার চেয়ে বেশি। পরিস্থিতি বিবেচনায় গত বছর কেন্দ্রীয় ব্যাংক এক নির্দেশনার মাধ্যমে ছোট ঋণ তথা ৫০ হাজার টাকার নিচের খেলাপি ঋণের বিপরীতে মামলা না করে আদায়ের সুযোগ দিয়েছে।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ব্যাংকগুলোতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং মান উন্নয়নের ওপর জোর দিয়েছেন ব্যবসায়ি নেতারা •২০২৪ সালের আগেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে বাংলাদেশ : এলজিআরডি মন্ত্রী •রিজার্ভ চুরির ঘটনায় আরসিবিসির বিরুদ্ধে মামলা করবে বাংলাদেশ ব্যাংক •একনেকে ১৩ প্রকল্পের অনুমোদন •ন্যূনতম ১৬ হাজার টাকা বেতন চান বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শ্রমিকরা •ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানির প্রস্তাব নাকচ •কম্বোডিয়ার সঙ্গে ১০টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document