/* */
   Monday,  Jun 25, 2018   10 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •আওয়ামী লীগের ইতিহাস মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস : প্রধানমন্ত্রী •জাতীয় উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করুন : রাষ্ট্রপতি •এমপি হোক আর এমপির ছেলে হোক কাউকে ছাড় নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী,আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল • তিন সিটিতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা •নাইজেরিয়ার জয়ে আর্জেন্টিনার স্বপ্ন বড় হলো •আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নানা কর্মসূচি •টেলিটকের ফোরজির জন্য অপেক্ষা আরো চার মাস
Untitled Document

বিশ্বের প্রথম পোর্টেবল দ্বীপ!

তারিখ: ২০১৫-০৮-২০ ১৩:৪৬:০৫  |  ৩১১ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

ডেস্ক নিউজ: যারা বিশাল ধনী ব্যক্তি তারা চাইলেই এখন একটি ব্যক্তিগত দ্বীপের মালিক হতে পারবেন। শুধু পছন্দের লোকেশন জানিয়ে দিলেই তৈরি করা দেয়া হবে আপনার ব্যক্তিগত দ্বীপ। এমনটি স্বপ্ন মনে হলেও এখন আর তা স্বপ্ন নয়। কারণ বাস্তবেই জানা গেছে বিশ্বের প্রথম পোর্টেবল দ্বীপ তৈরির পরিকল্পনার কথা।

এই পরিকল্পনা অনুযায়ী দ্বীপগুলো হবে পরিবেশ বান্ধব এবং নিজে নিজেই টিকে থাকতে সক্ষম। ফলে যারা অত্যন্ত ধনী, তারা পৃথিবীর যেকোন স্থানে তাদের অবসর যাপনের স্থান তৈরি করে নিতে পারবে।

দ্বীপের প্রতিটি বাড়ি তার গ্রাহকের সুযোগ-সুবিধায় পরিপূর্ণ থাকবে। যেমন সুইমিং পুল, নৌকার পোতাশ্রয়, সবুজ বাগান এসব কিছুই থাকবে সেখানে। এছাড়া প্রতিটি দ্বীপের পরিবেশগত প্রভাব সর্বনিম্ন পর্যায়ে রাখতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে।

এই পরিকল্পনা বা উদ্যোগের পেছনে রয়েছে আমিল্লারাহ প্রাইভেট আইল্যান্ড। এর তত্ত্বাবধানে রয়েছে ডাচ ডকল্যান্ডস নামের একটি নির্মাণ (ভাসমান স্থাপনা) কোম্পানি। যারা আপনাকে যেকোন আকার ও আকৃতির দ্বীপ অফার করবে।

ডাচ ডকল্যান্ডস এই প্রোজেক্টের জন্য ক্রিস্টিস ইন্টারন্যাশনাল রিয়াল এস্টেটের সঙ্গে জোটবদ্ধভাবে কাজ করছে।

ক্রিস্টিস ইন্টারন্যাশনাল রিয়াল এস্টেটের প্রধান নির্বাহী ড্যান কন বলেন, 'সত্যি সত্যিই পানির উপর ব্যক্তিগত দ্বীপ তৈরির সুযোগ এই ক্ষেত্রে ডাচ ডকল্যান্ডসের দক্ষতার প্রমাণ বহন করে।'

তিনি বলেন, 'বিস্তৃত পরিসরের বিভিন্ন লোকেশনে ক্রেতারা তাদের বাসস্থানের আকার, আকৃতি ও ধরণ পরিবর্তন করতে পারবে। শুরুতেই মালদ্বীপে তারা এই সুযোগ পেতে যাচ্ছে।'

কোম্পানিটি ইতোমধ্যে মালদ্বীপ সরকারের সহায়তায় ১০টি স্থাপনা তৈরির কাজ শুরু করেছে। দ্বীপগুলোর ডিজাইন করেছেন বিখ্যাত ডাচ আর্কিটেক্ট কোয়েন অলথিয়াস।

পৃথিবীর যেকোন স্থানে দ্বীপ তৈরির কথা বললেও সংশ্লিষ্ট দেশের জলসীমায় এরূপ স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি বা আইনগত দিক সম্বন্ধে কোন কিছু জানায়নি কোম্পানিটি।

সূত্র: মিরর


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•কলাপাড়ায় টিয়াখালী ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ॥ •নবম ওয়েজ বোর্ডের কার্যক্রম শুরু •কলাপাড়ায় শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির স্মারকলিপি প্রদান ॥ •খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ •ফিলিপাইনে ঝড়ের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৩ •শেখ হাসিনাকে ‘বোন’ ডাকলেন হুন সেন •তুর্কি বাহিনীর সিরিয়ায় প্রবেশ •কবিসংসদ বাংলাদেশ-এর ২৯৯তম সাহিত্যসভা অনুষ্ঠিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document