/* */
   Wednesday,  Sep 19, 2018   03:07 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় কর্মী প্রেরণে কোন বাধা নেই : প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী •একাদশ সংসদ নির্বাচনে এক-তৃতীয়াংশ আসনে ইভিএম •লন্ডনে গঠিত বঙ্গবন্ধুসহ চার নেতা হত্যার তদন্ত কমিশনকে বাংলাদেশে আসতে ভিসা দেয়া হয়নি •প্রধানমন্ত্রী আগামী ৫ সেপ্টেম্বর পদ্মা সেতুর রেল সংযোগের ফলক উন্মোচন করবেন •কলাপাড়ায় স্লুইস সংস্কার ও রাস্তা মেরামতের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। •নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের প্রেক্ষিতে বিএনপির সরকার পদত্যাগের দাবির কোন বাস্তবতা নেই : তথ্যমন্ত্রী •মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংসের জন্যই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয় : শিল্পমন্ত্রী
Untitled Document

বাগদা চিংড়ির নতুন প্রজাতি ‘চেরাক্স স্নোডেন’

তারিখ: ২০১৫-০৮-২৬ ১৭:১৫:১১  |  ২৩৬ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

ডেস্ক নিউজ: বাগদা চিংড়ির নতুন এক প্রজাতির নাম রাখা হয়েছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা’র সাবেক কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেনের নামে। মার্কিন সরকারের আড়িপাতার ন্যাক্কারজনক কর্মসূচির বিষয়টি ফাঁস করে বিশ্বব্যাপী সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন স্নোডেন।

একটি জার্মান গবেষক দল স্নোডেনের নাম বাগদা চিংড়ির এ প্রজাতির নামকরণ করেছেন।  তিন সদস্যের এ দলের অন্যতম ক্রিস্টিয়ান লুকহাপ মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের কাছে এর কারণ তুলে ধরেছেন। তিনি বলেন, মানবতার জন্য তেমন কোনো অবদান না রাখা সত্ত্বেও , অনেক খ্যাতনামা ব্যক্তির নামে নানা প্রজাতির নামকরণ করেছেন গবেষকরা। এ ক্ষেত্রে এডওয়ার্ড স্নোডেন খুবই বিশেষ ভূমিকা পালন করেছেন এবং  তার প্রতি সমর্থন জানানোর জন্য বাগদা চিংড়ির এ প্রজাতি নাম তার নামে রাখা হয়েছে বলে জানান লুকহাপ।

নতুন প্রজাতির এ বাগদা চিংড়ির বিবরণ ‘জু কিজ’ নামের গবেষণা সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে। ‘চেরাক্স স্নোডেন’ নামের এ বাগদা প্রজাতি ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম পাপুয়ার তাজাপানিতে পাওয়া যায়। তিন থেকে চার ইঞ্চি লম্বা এ চিংড়ির সাড়াশির রং সবুজ এবং কমলা। এর আগে অন্য এক প্রজাতির বাগদার সঙ্গে এর পরিচয় গুলিয়ে ফেলা হয়েছিল।

শোভাবর্ধনের জন্য এ জাতের বাগদা চিংড়ি পোষা হয় । এ সব চিংড়ি ইউরোপ, পূর্ব এশিয়া এবং উত্তর আমেরিকায় রফতানি হয়। খাওয়ার নয় পোষার জন্য। ফলে গত কয়েক বছরে প্রকৃতিতে এ প্রজাতির সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে কমছে।  শিকারির হাত এড়াতে পানির  নিচের এ সব  'স্নোডেন' বড় বড় পাথরের আড়ালে আত্মগোপন করে থাকে। বর্তমানে সংগ্রাহকরাই পানির 'স্নোডেনের' সবচেয়ে বড় শিকারি হয়ে উঠেছে।

এদিকে মার্কিন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য একই ভাবে রাশিয়ায় আত্মগোপন করে আছেন এডওয়ার্ড স্নোডেন।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•কলাপাড়ায় টিয়াখালী ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ॥ •নবম ওয়েজ বোর্ডের কার্যক্রম শুরু •খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ •ফিলিপাইনে ঝড়ের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৩ •শেখ হাসিনাকে ‘বোন’ ডাকলেন হুন সেন •কবিসংসদ বাংলাদেশ-এর ২৯৯তম সাহিত্যসভা অনুষ্ঠিত •বার্মায় মুসলিম বিরোধী এক উগ্র বৌদ্ধ ভিক্ষুর কথা • ১৫ আগষ্ট’ ২০১৭ ইং জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নিলখী ইউনিয়ান আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল পরে তোবারক বিতরন।
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document