/* */
   Friday,  Sep 21, 2018   9 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

ওয়াশিকুর বাবু হত্যায় ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

তারিখ: ২০১৫-০৯-০১ ১৫:২৩:৫০  |  ২৪৯ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

নিজস্ব প্রতিবেদক: ব্লগার ওয়াশিকুর বাবু হত্যা মামলায় পাঁচজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। এদের মধ্যে ৩ জন গ্রেফতারকৃত আসামি এবং বাকী দুজন পলাতক।

মঙ্গলবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মনিরুল ইসলাম বলেন, গত ৩০ মার্চ সকালে হাতিরঝিল সংলগ্ন বেগুনবাড়ি এলাকায় ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে (২৬) কুপিয়ে হত্যা করার মামলায় গ্রেফতাকৃত তিন আসামি দুই মাদ্রাসাছাত্র জিকরুল্লাহ, আরিফুল ইসলাম ও সাইফুল ইসলাম এবং পলাতক দুই আসামি হাসিব আব্দুল্লাহ ও আবু তাহের জুনায়েদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে।

বাবু হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ইসলামসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে ওই রাতে তেজগাঁও থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন ওয়াশিকুরের ভগ্নিপতি মনির হোসেন। পরে আটককৃতদের এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। মামলার অন্য আসামিরা হলেন হত্যার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত আবু তাহের ও পরিকল্পনাকারী মাসুম।

চার্জশিট দেওয়ার বিষয়ে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মনিরুল ইসলাম বলেন, ব্লগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে লেখালেখি করার অভিযোগে ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে কুপিয়ে হত্যা করে জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্যরা। হত্যার দিন পুলিশ ও জনতা হাতেনাতে দুজনকে আটক করে। পরবর্তী সময়ে তাদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার কথা স্বীকার করেছে।
গত ৩০ মার্চ সকালে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের বেগুনবাড়ী দিপীকার ঢাল এলাকার বাসা থেকে বের হয়ে অফিসে যাওয়ার পথে ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ফেসবুক ও ব্লগসহ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম নিয়ে লেখালেখি করার কারণেই বাবুকে হত্যা করা হয়েছে বলে গ্রেফতারকৃতরা স্বীকার করেছে। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত তিনটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

বাবুকে হত্যার পরপরই জনতার সহায়তায় পুলিশ জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ইসলাম নামে ওই দুই মাদ্রাসাছাত্রকে আটক করে। আবু তাহের পালিয়ে যায়। জিকরুল্লাহ  ও আরিফ যথাক্রমে চট্টগ্রামের হাটহাজারী এবং রাজধানীর মিরপুরের একটি মাদ্রাসার ছাত্র।

গোয়েন্দা পুলিশের এডিসি সাইফুল ইসলাম জানান, পলাতক দুই আসামি আব্দুল্লাহ ও জুনায়েদ দুজনই রাজধানীর দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ছিলো। কিন্তু তারা পড়ালেখা শেষ করতে পারেনি। আব্দুল্লাহ ঢাকা কলেজে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হয়ে দ্বিতীয় বর্ষ পর্যন্ত পড়ে আর পড়তে পারেনি। আর জুনায়েদ মিরপুর এলাকার কোনো একটি মাদ্রাসা থেকে দাওরা পর্যন্ত পড়ে আর পড়তে পারেনি।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •হলি আর্টিজান মামলার অভিযোগপত্র দাখিল •আমতলীতে ৫শ’পিচ ইয়াবাসহ মাদক বিক্রেতা আটক •এমপি হোক আর এমপির ছেলে হোক কাউকে ছাড় নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী,আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল •বেসিক ব্যাংকের দুর্নীতি মামলার সব তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব •খালেদা জিয়ার মাথায় আরো যেসব মামলা ঝুলছে •নিখোঁজ হবার প্রায় চারমাস পর 'গ্রেপ্তার' বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব, চারদিনের রিমান্ডে •ডেসটিনির দুই শীর্ষ কর্তার আবেদন খারিজ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document