/* */
   Wednesday,  Jun 20, 2018   3 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশের ঢাকায় কিভাবে কাটে তরুণীদের অবসর সময়? •রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •বাংলাদেশের উপকূলের কাছে রাসায়নিক বহনকারী জাহাজে আগুন •ঈদের যুদ্ধবিরতিতে অস্ত্র ছাড়াই কাবুলে ঢুকলো তালেবান যোদ্ধারা •বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ঢাকা মহানগরীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত •জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়
Untitled Document

সরকার সমর্থক ১১, বিরোধী জোট ৩

তারিখ: ২০১৫-০৯-০৩ ১২:২৮:০৯  |  ২১৭ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

নিজস্ব প্রতিবেদক: বার কাউন্সিল নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফলাফলে সরকার সমর্থক আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সাদা প্যানেল ১৪টি পদের মধ্যে ১১টি পদে জয়ী হয়েছে। আর বিরোধী জোট সমর্থক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের নীল প্যানেল পেয়েছে ৩টি পদ।

বৃহস্পতিবার ভোরে আনুষ্ঠানিক এ ফলাফল ঘোষণা করেন বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

বুধবার সন্ধ্যা থেকে বার কাউন্সিল ভবনে ভোটের আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা শুরু হয়।

গত ২৬ আগস্ট বার কাউন্সিলের নির্বাচনে সারাদেশের ৭৭টি কেন্দ্রে  একযোগে ভোটগ্রহণ করা হয়। সকাল দশটা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে স্থাপিত ভোটকেন্দ্র, দেশের জেলা সদরের সব দেওয়ানি আদালত প্রাঙ্গণে এ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনের পর বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, সাদা প্যানেল ১০টিতে, নীল প্যানেল ৪টিতে এগিয়ে ছিল।

আনুষ্ঠানিক ফলাফলে সাধারণ আসনে বিজয়ী সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের পাঁচজন হলেন- ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম (১৪,০৪৩) অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার (১৫,১০৯), অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু (১৪,৪২৪), অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না (১৩,০৭৮) ও অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম (১৩,১৯২)। গ্রুপ আসনে তাদের বিজয়ী ছয়জন হচ্ছেন- এ গ্রুপে কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, বি গ্রুপে এইচ আর জাহিদ আনোয়ার, সি গ্রুপে ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, ই গ্রুপে পারভেজ আলম খান, এফ গ্রুপে মো. ইয়াহিয়া ও জি গ্রুপে মো. রেজাউল করিম।

সাধারণ আসনে বিজয়ী জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের দুইজন হলেন- অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন (১৪,২৫৯) ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন (১৫,০৬৯)। গ্রুপ আসনে তাদের বিজয়ী একমাত্র প্রার্থী হচ্ছেন ডি গ্রুপে অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু।

প্রতি তিন বছর অন্তর অন্তর বার কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বার কাউন্সিল ১৫ জন সদস্যের সমন্বয়ে পরিচালিত হয়ে থাকে। এর মধ্যে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল পদাধিকার বলে এর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

আর বাকি ১৪ জন আইনজীবী সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হয়ে থাকেন। নির্বাচিত ১৪ জনের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের মতামতের ভিত্তিতে একজন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বেসিক ব্যাংকের দুর্নীতি মামলার সব তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব •খালেদা জিয়ার মাথায় আরো যেসব মামলা ঝুলছে •নিখোঁজ হবার প্রায় চারমাস পর 'গ্রেপ্তার' বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব, চারদিনের রিমান্ডে •ডেসটিনির দুই শীর্ষ কর্তার আবেদন খারিজ •প্রথমে ছেলে, পরে বাপ এসে আমার ওপর নির্যাতন করে' •ঝিনাইদহে সার কারখানা থেকে বিপুল পরিমান সালফিউরিক এ্যাসিড জব্দ, লাইসেন্স বাতিল, জরিমানা •হাইড্রোলিক হর্ন ১৫ দিনের মধ্যে থানায় জমা দিতে হবে : হাইকোর্ট •ঝিনাইদহে ৭ বছর পর রিপন হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ডের আদেশ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document