/* */
   Tuesday,  Dec 11, 2018   10 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

ঈদে গরুর মাংসের দুই পদ

তারিখ: ২০১৫-০৯-১৩ ১৭:০৪:২৬  |  ৬১২ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

ডেস্ক নিউজ: কম-বেশি সবাই গরুর মাংস খেতে পছন্দ করেন। আর ঈদে তো বাড়িতে গরুর মাংস থাকেই। তাই খাবারে ভিন্নতা আনতে রান্না করুন গরু মাংসের বিভিন্ন পদ।

গরুর মাংস ভুনা

উপকরণ:
- গরুর মাংস ১ কেজি
- আদা বাটা ৪ টেবিল চামচ
- রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ
- আস্ত রসুন ৬ কোয়া
- জিরা বাটা ১ চা চামচ
- দারুচিনি ৬ টুকরা
- এলাচ ৬ টুকরা
- পেঁয়াজ মোটা গোল করে কাটা ২ কাপ
- পেঁয়াজ চিকন কুচি ১ কাপ
- কাঁচা জিরা
- শুকনা মরিচ ২টা
- তেল ২ কাপ
- হলুদ বাটা দেড় চা চামচ
- শুকনা মরিচ বাটা ১ চা চামচ
- লবণ ১ টেবিল চামচ
- চিনি ১ চা চামচ

প্রণালী:
প্রথমে চুলায় তেল দিয়ে চিকন কুচি করা পেঁয়াজ ভেজে নিতে হবে। এবার মোটা গোল পেঁয়াজ দিয়ে একটু বাদামি হলে মাংস, আদা বাটা, রসুন বাটা, জিরা বাটা, হলুদ বাটা, মরিচ বাটা দিয়ে খুব ভালো করে ভুনে গরম পানি ২ কাপ ঢেলে দিতে হবে। মাংস আধা সেদ্ধ হলে আস্ত রসুন দিতে হবে এবং ঢিমা আঁচে রাখতে হবে। এবার চুলায় কাঁচা জিরা, দারুচিনি, এলাচ, শুকনা মরিচ শুকনা তাওয়ার ওপর ভেজে গুঁড়া করে নিতে হবে। ভাজা পেঁয়াজ চিনির সঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে। যখন মাংস ভুনে তেলের ওপর আসবে, তখন পেঁয়াজের সঙ্গে মেশানো মসলা মাংসের ওপর ছড়িয়ে ঢিমা আঁচে আধা ঘণ্টা রাখতে হবে।



গরু মাংসের তেহারি

উপকরণ:
– গরু মাংস ১ কেজি
– পোলাও চাল ১ কেজি
– গোল আলু আধা কেজি
– পেঁয়াজ কুঁচি আধা কাপ
– আদা বাটা দেড় টেবিল চামচ
– রসুন বাটা দেড় টেবিল চামচ
– জিরা গুড়া ১ চা চামচ
– কাঁচা মরিচ বাটা দুই টেবিল চামচ (ঝাল অনুযায়ী)
– গোল মরিচ বাটা আধা চা চামচ
– জয়ত্রী বাটা হাফ চা চামচ
– জয়ফল বাটা এক চিমটি
– বাদাম বাটা হাফ কাপ (যেকোনো বাদাম বাটা হলে চলবে)
– গরম মশলা (এলাচি ৪/৫ টা, দারুচিনি ৪/৫ টুকরো)
– লবণ স্বাদমতো
– চিনি আধা চা চামচ
– কিসমিস দুই টেবিল চামচ
– টক দই দেড় কাপ
– ৫/৬ টি আস্ত কাঁচা মরিচ
– তেল দেড় কাপ
– পানি (গরম হলে ভালো, রান্না শুরুর আগে কিছু পানি গরম করে রেখে দেবেন)

পদ্ধতি:

মাংস, চাল ও আলু তৈরির প্রিপারেশন
- প্রথমে মাংস মাঝারি থেকে ছোটো করে কেটে নিয়ে ভালো করে ধুয়ে টক দই দিয়ে মাখিয়ে আলাদা করে রাখুন ৩০ মিনিট। বাসায় টিক দই না থাকলে এক কাপ দুধে এক টেবিল চামচ ভিনেগার দিয়ে এই দই বানিয়ে নিতে পারেন।
- এরপর চাল ভালো করে ধুয়ে পানিতে ১৫-২০ মিনিট ভিজিয়ে আলাদা করে রাখুন।
- মাঝারি আকারের গোল আলুর খোসা ছড়িয়ে নিয়ে এবং সামান্য লবণ দিয়ে পানিতে আধা সিদ্ধ করে পানি ফেলে দিয়ে আলু গুলো ভাজার জন্য তুলে রাখুন।
- একটি প্যানে তেল গরম করে নিয়ে এতে আলুগুলো দিয়ে লালচে করে ভেজে তুলে নিন।

তেহারি রান্না
- চাল, মাংস এবং আলুর পরিমাণ অনুযায়ী একটি বড় পাত্র নিন। কারণ পাত্র ছোট হলে রান্না নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
- এরপর পাত্রে তেল গরম করুন এবং এক চা চামচ লবণ দিয়ে পেঁয়াজ কুচি এবং আস্ত মরিচ ও দারুচিনি, এলাচি দিয়ে ভালো করে ভাজতে থাকুন।
- পেঁয়াজ কুচি নরম হয়ে এলে সব ধরণের মসলা ও বাটা মসলা দিয়ে কষাতে থাকুন। কষানোর সময়েই আধা চা চামচ চিনি দিয়ে দিন। কষানো হলে তেল উপরে উঠে যাবে সুন্দর ঘ্রাণ ছড়াবে। - এরপর এতে মাংস দিয়ে দিতে হবে। মাংস দিয়ে ভালো করে নেড়ে মসলার সাথে মিশিয়ে নিন। এবং ১০ মিনিট দশ মাঝারি আঁচে রেখে দুই কাপ গরম পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে মাংস সেদ্ধ করতে থাকুন। মাংস নরম না হলে আরো এক কাপ পানি দিয়ে আবার ঢেকে দিন।
- মাংস সেদ্ধ হয়ে নরম হয়ে গেলে ভেজে রাখা আলু গুলো দিয়ে দিন। এবার কিসমিস গুলো দিয়ে ভাল করে নেড়ে নিন।
- তারপর চাল ছেঁকে নিয়ে মাংসের মধ্যে চাল দিয়ে দিন। চালের উপর হাফ ইঞ্চি পানি দিন। পাশাপাশি আরো কিছু পানি হাতের কাছে রাখুন। পানি বেশীর জন্য তেহারি ঝরঝরে না থেকে নরম এবং গলা গলা হয়ে যেতে পারে। তাই পানি দিতে হবে সাবধানে।
- পানি দিয়ে লবণের স্বাদ বোঝার চেষ্টা করুন এবং লাগলে আরও লবণ দিন। এরপর ঢাকনা দিয়ে মিনিট ১৫/২০ অপেক্ষা করুন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিতে ভুলবেন না। নেড়ে দেয়ার সময় যদি পানি কম মনে হয় তবে কিংবা চাল শক্ত থাকার সম্ভাবনা যদি থাকে তবে আরও পানি দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিতে হবে।
- চাল ফুটে সিদ্ধ করে এলে পাত্রের নিচে একটি তাওয়া দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ভালো করে ঢেকে চুলের ওপর দমে বসিয়ে দিন ১০ মিনিট।
- ১০ মিনিট পর চুলা থেকে নামিয়ে ওপরে বাদাম, কিশমিশ বা পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•গরুর মাংসের টিক্কা •ফ্রিজে রাখা মাছের টাটকা স্বাদ ফেরানোর উপায় •বেলের উপকারিতা •গরমে পান করুন ঘোল বা মাঠার শরবত • স্পেসাল চিকেন ফ্রাই উইথ বারবিকিউ সস- লেখকঃ মোঃ সুজন ইসলাম •" দুধ পাটিসাপটা "- লেখকঃ মোঃ সুজন ইসলাম •সহজেই তৈরি করুন সুস্বাদু রসগোল্লা • মজাদার চিংড়ি বল
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document