/* */
   Monday,  Sep 24, 2018   9 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ বন্ধে নির্দেশনা

তারিখ: ২০১৫-১১-১১ ২০:৩২:৩১  |  ৩৬২ বার পঠিত

1 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»
বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের সকল শূন্যপদে নিয়োগ বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত দেশের বেসরকারি বিদ্যালয়, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বুধবার এক পরিপত্রের মাধ্যমে মন্ত্রণালয় এ নির্দেশনা দেয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব চৌধুরী মুফাদ আহমদ স্বাক্ষরিত পরিপত্রে বলা হয়, পরবর্তী নির্দেশনা জারির আগ পর্যন্ত বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে না। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষাগ্রহণ ও প্রত্যয়ন বিধিমালা, ২০০৬  সংশোধনের কারণে নিয়োগ কার্যক্রমে পদ্ধতিগত পরিবর্তনের প্রয়োজন দেখা দেওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে পরিপত্রে উল্লেখ করা হয়।

নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ রাখার এ নির্দেশনাটি বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষাগ্রহণ ও প্রত্যয়ন বিধিমালা ২০০৬ এর অধিকতর সংশোধনীর গেজেট প্রকাশের তারিখ থেকে কার্যকর বলে পরিপত্রে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়। এ কারণে গেজেট প্রকাশের দিন ২২ অক্টোবরের পর গৃহীত সকল নিয়োগ কার্যক্রম অবৈধ হিসেবে বিবেচিত হবে বলেও পরিপত্রে উল্লেখ করা হয়।

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি বন্ধে সরকার নীতিমালা সংশোধনের এ উদ্যোগ নেয়। নতুন নিয়মে সারা দেশের বেসরকারি বিদ্যালয়, কলেজ ও মাদ্রাসায় শিক্ষক নিয়োগে বিসিএসের আদলে কেন্দ্রীয়ভাবে পরীক্ষা নিয়ে মেধা তালিকা করে দেবে সরকার। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে কর্তৃপক্ষকে এই মেধাক্রম অনুযায়ীই নিয়োগ দিতে হবে। এতোদিন ধরে দেশের প্রায় ১৯ হাজার বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সাড়ে তিন হাজার কলেজ ও সাড়ে নয় হাজার মাদ্রাসা নিজেদের পছন্দেই নিয়োগ দিয়ে আসছিলো।  বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ কেন্দ্রীয় পরীক্ষার মাধ্যমে নেয়ার বিষয়টি নিয়ে গত এক বছর ধরে আলোচনা চলছিল। পরে নতুন এ নিয়ম অন্তর্ভুক্ত করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ ও প্রত্যয়ন বিধিমালা সংশোধন করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ২২শে অক্টোবরের তারিখে সই করা বিধিমালাটি ৪ঠা নভেম্বর বিধিমালাটি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে।

নতুন নিয়মে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) প্রতিবছরের নভেম্বর মাসের মধ্যে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার মাধ্যমে ওই জেলার বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর পদ ও বিষয়ভিত্তিক শূন্য পদের তালিকা সংগ্রহ করবে। এই তালিকার ভিত্তিতে পরীক্ষা নেয়া হবে। প্রথমে একটি বাছাই (প্রিলিমিনারি) পরীক্ষা হবে। এরপর ঐচ্ছিক বিষয়ে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা নিয়ে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের উপজেলা, জেলা ও জাতীয়ভিত্তিক মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে। এই মেধাক্রম অনুযায়ী নিয়োগ দিতে হবে। কোন প্রার্থী লিখিত ও মৌখিক উভয় ক্ষেত্রে পৃথকভাবে শতকরা ৪০ নম্বর না পেলে তিনি মেধাতালিকায় স্থান পাবেন না। মেধাভিত্তিক মূল তালিকা ছাড়াও শূন্য পদের ২০ ভাগ প্রার্থীর সমন্বয়ে অপেক্ষমাণ তালিকাও প্রকাশ করা হবে। মৃত্যু ঘটলে, চাকরি ছাড়লে বা অন্য কোন কারণে পদ শূন্য হলে, এই তালিকা থেকে শিক্ষক নিয়োগ করা যাবে।

     

 

      

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•যোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিও ভুক্তির কাজ চলছে : নাহিদ •রাজৈরে স্কুল নির্বাচন সম্পন্ন •আমতলী উপজেলায় প্রাথমিকের ৮০টি প্রধান শিক্ষকের পদ খালি, শিক্ষার বেহাল দশা •ছাত্র বৃত্তি সঠিকভাবে বিতরণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর •বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীদের জন্য ইশারা ভাষা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হবে : মেনন •ঝিনাইদহে এবার স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে এনে হত্যাচেষ্টা •আমতলীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানি প্রতিবাদ করায় মেয়েসহ মামাকে মারধর •ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদ সভা
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document