/* */
   Monday,  Jun 18, 2018   7 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশের ঢাকায় কিভাবে কাটে তরুণীদের অবসর সময়? •রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •বাংলাদেশের উপকূলের কাছে রাসায়নিক বহনকারী জাহাজে আগুন •ঈদের যুদ্ধবিরতিতে অস্ত্র ছাড়াই কাবুলে ঢুকলো তালেবান যোদ্ধারা •বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ঢাকা মহানগরীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত •জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়
Untitled Document

২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেল বাংলাদেশের মেয়েরা।

তারিখ: ২০১৫-১২-০৩ ২০:১১:০০  |  ২৫১ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

  নিউজ ডেস্ক:    গ্রুপ পর্বের তিনটি ম্যাচ। প্রথমটিতে ৭৩ রানে জয়। বাকি দুটিতে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে জয়। দাপট দেখিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে থেকে সেমিফাইনালে ওঠে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

 

সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ পায় জিম্বাবুয়েকে। খুব চেনা প্রতিপক্ষ। গেল মাসেই ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে নারী ক্রিকেট দলকে হোয়াইটওয়াশ করেছে টাইগ্রেসরা। সেমিফাইনালে তাদেরকে পেয়ে খানিকটা খুশিই হয় বাংলাদেশের মেয়েরা।

 

বৃহস্পতিবার প্রথম সেমিফাইনালে ব্যাট করে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি জাহানারা আলমের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৮৯ রান সংগ্রহ করে। কিন্তু বল হাতে দারুণভাবে চেপে ধরে প্রতিপক্ষকে।

 

মাত্র ৫৮ রানে জিম্বাবুয়ের ইনিংসকে গুড়িয়ে দিয়ে ৩১ রানের জয় তুলে নিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি নিশ্চিত করেছে ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের টিকিটও। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেল বাংলাদেশের মেয়েরা।

  

৯০ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের তোপের মুখে পড়ে জিম্বাবুয়ে নারী ক্রিকেট দল। নিয়মিত বিরতিতে তারা উইকেট হারাতে থাকে। ৪৪ রানের মধ্যেই তারা হারিয়ে বসে আট-আটটি উইকেট। শেষ পর্যন্ত ১৯.১ ওভারে ৫৮ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের নারীরা।

 

৪টি উইকেট নিয়েছেন রুমানা আহমেদ। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন শায়লা শারমিন ও ফাহিমা খাতুন। অন্য দুই উইকেট রান আউটে কাটা পড়ে।

 

এর আগে ব্যাংককের তারথাই ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পরে বাংলাদেশের মেয়েরা। ১০ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসে প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যানকে। আয়শা রহমান ৫ এবং শায়লা শারমিন ও রুমানা আহমেদ শূন্য রানে সাজঘরে ফেরেন।

 

এরপর শারমিন আক্তার ও ফারজানা হক মিলে দলীয় স্কোরকে ৬১ রান পর্যন্ত টেনে নেন। ১৫.১ ওভারের মাথায় দলীয় ৬১ রানে আউট হয়ে যান শারমিন আক্তার (২২)। দলীয় ৮৬ রানে ফারাজানা হক ব্যক্তিগত ৪৩ রানে আউট হলে ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৮৯ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস। রিতু মনি ৯ ও জাহানারা আলম ২ রানে অপরাজিত থাকেন।

 

বল হাতে জিম্বাবুয়ের জোসেফিনে এমকোমো ২টি উইকেট নেন। ১টি উইকেট নেন মাজভিশায়া। বাংলাদেশের অন্য দুটি উইকেট রান আউটে কাটা পড়ে।

 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •হঠাৎ রিয়াল ছাড়লেন জিদান •বিপিএল : দর্শকপূর্ণ সিলেট ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উৎসব মুখর পরিবেশ •ফুটবল খেলা আমাদের কাছে স্বাধীনতা': কলকাতায় মুসলিম মহিলাদের ফুটবল ম্যাচ •মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে গ্রেপ্তার টাইগার উডস •আইপিএলের পূর্ণাঙ্গ সূচি •রামগঞ্জে আনোয়ার খান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শর্ট পিচ ক্রিকেট টুনামেন্ট উদ্বোধন • মামলায় জামিন পেলেন ক্রিকেটার আরাফাত সানি
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document