/* */
   Tuesday,  Jun 19, 2018   4 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশের ঢাকায় কিভাবে কাটে তরুণীদের অবসর সময়? •রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •বাংলাদেশের উপকূলের কাছে রাসায়নিক বহনকারী জাহাজে আগুন •ঈদের যুদ্ধবিরতিতে অস্ত্র ছাড়াই কাবুলে ঢুকলো তালেবান যোদ্ধারা •বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ঢাকা মহানগরীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত •জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়
Untitled Document

আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রতি লিটারের দাম পড়ে প্রায় ১৫ টাকা।

তারিখ: ২০১৬-০১-২৮ ১৬:৪৮:৫৭  |  ১১৪৬ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

বাংলার বর্ণমালা ডেস্ক;   বিস্ময়কর হলেও এ কথা সত্য যে বর্তমানে বাংলাদেশে পানি কিনতে হচ্ছে যে দামে, আন্তর্জাতিক বাজারে তার চেয়ে কম দামে  বিক্রি হচ্ছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল।

বর্তমানে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি ব্যারেল (এক ব্যারেল ১৫৯ লিটার) অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি হচ্ছে ৩০ ডলারের কমে। এ হিসাবে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রতি লিটারের দাম পড়ে প্রায় ১৫ টাকা।

অথচ দেশে প্রতি লিটার বোতলজাত পানি বিক্রি হচ্ছে প্রায় ২০ টাকায়।

অর্থাৎ আন্তর্জাতিক বাজারে পানির চেয়েও সস্তায় মিলছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল।

আন্তর্জাতিক বাজারে ১২ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দামে লেনদেন হচ্ছে জ্বালানি তেল।

বিশ্ববাজারে দাম পড়ে যাওয়ার পর দেশে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর জোর দাবি উঠছে। ব্যবসায়ী নেতারা এ দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছেন। অর্থনীতিবিদরাও দাম কমানোর সুপারিশ করছে।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেল প্রতি ৯৭ ডলার হলে সে সময় দেশে এর দাম বাড়ানো হয়। এখন তা ৩০ ডলারে নেমে এলেও দেশে দাম কমানোর উদ্যোগ নেই।

আন্তর্জাতিক বাজারে বর্তমানে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ব্যারেল প্রতি ৩০ ডলারের কিছু বেশি দামে বিক্রি হলেও গত সপ্তাহে তা ২৭ ডলারে নেমে আসে। আন্তর্জাতিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, চলতি বছরের পুরো সময় জুড়ে ব্যারেলপ্রতি জ্বালানি তেল ৩০ থেকে ৪০ ডলারে লেনদেন হবে।

গত সোমবার বিশ্বব্যাংক তাদের কমোডিটি আউটলুকে চলতি বছর প্রতি ব্যারেল অপরিশোধিত জ্বালানি তেল ৩৭ ডলারে বিক্রি হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে। একই দামে পণ্যটি লেনদেনের পূর্বাভাস দিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিনিয়োগ ব্যাংক বার্কলেস এবং ইতালি ভিত্তিক বহুজাতিক ব্যাংক ও আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ইউনিক্রেডিট।

আর যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস বলছে, ২০১৬ সালে বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল বিক্রি হতে পারে ব্যারেলপ্রতি ৪০ ডলারে।

বিপিসি সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক বাজার থেকে বছরে ১২ লাখ টন অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি করে সংস্থাটি।

বাকি ৩৮ লাখ টন আমদানি করে পরিশোধিত হিসেবে। সেখানে পরিশোধিত তেলের দাম অপরিশোধিত তেলের চেয়ে অনেক বেশি হয়।

ব্যারেল প্রতি কখনো কখনো ২০ ডলারের পার্থক্য থাকে। অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ৩০ ডলার হলেও পরিশোধিত জ্বালানি তেল ৪৫-৫০ ডলার।

বিপিসি সূত্রে জানা গেছে, বাজারে এখন প্রতি লিটার ডিজেল বিক্রি হচ্ছে ৬৮ টাকা, কেরোসিন ৬৮, অকটেন ৯৯ ও পেট্রল ৯৬ টাকায়।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যান এ এম বদরুদ্দোজা জানিয়েছেন, প্রতি লিটার অকটেনে ৪০ টাকা, পেট্রলে ৩৫ টাকা, ডিজেল ও কেরোসিনে ২০ টাকা ও ফার্নেস তেলে ১৫ টাকা মুনাফা হচ্ছে।

অবশ্য বেসরকারি হিসাবে মুনাফার পরিমাণ আরও বেশি।
 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ব্যাংকগুলোতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং মান উন্নয়নের ওপর জোর দিয়েছেন ব্যবসায়ি নেতারা •২০২৪ সালের আগেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে বাংলাদেশ : এলজিআরডি মন্ত্রী •রিজার্ভ চুরির ঘটনায় আরসিবিসির বিরুদ্ধে মামলা করবে বাংলাদেশ ব্যাংক •একনেকে ১৩ প্রকল্পের অনুমোদন •ন্যূনতম ১৬ হাজার টাকা বেতন চান বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শ্রমিকরা •ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানির প্রস্তাব নাকচ •কম্বোডিয়ার সঙ্গে ১০টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document