/* */
   Friday,  Jun 22, 2018   7 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা •প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরে গঠিত হতে পারে : ওবায়দুল কাদের
Untitled Document

ডেনমার্কের আরহুস অঞ্চলে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শুক্রাণু ব্যাংক।

তারিখ: ২০১৬-০২-০৪ ০০:০০:২৭  |  ৩১৯ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

 

ফিচার ডেস্ক

                খুব সম্ভবত সময়টা ২০০৬ সাল। জার্মানি একদল বিজ্ঞানী গোপনে জিনবিদ্যা নিয়ে কিছু কাজ করছিলেন। একই জীবের সকল গুনাবলী ও বৈশিষ্ট্য অটুট রেখে ওই একই জীবকে কৃত্তিম উপায়ে সৃষ্টি করার উদ্দেশ্য নিয়ে তারা ওই গবেষণাটি শুরু করেছিলেন। অবশ্য জার্মান জনসাধারণকে তারা বলেছিলেন যে, শারিরীকভাবে বিকলাঙ্গ মানুষের অঙ্গ ফিরিয়ে দেবার উদ্দেশ্যেই তারা এই পরীক্ষা নিরীক্ষা করছে। আর সেই পরীক্ষার অংশ হিসেবে তারা একটি খরগোশ ও একটি ইঁদুর তৈরি করলেন কৃত্তিম উপায়ে, যাকে বলা হলো ক্লোন। খবরটি গবেষকরা যেভাবেই হোক আর গোপন রাখতে পারলেন না। এরপরতো গোটা বিশ্বেই এই গবেষণার বিরুদ্ধে ধর্মতাত্ত্বিক মানুষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ প্রতিবাদ করতে শুরু করে। এই প্রতিবাদের ফলস্বরুপ একটা পর্যায়ে ওই গবেষণা বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়।

কিন্তু তৎকালীন সময়ে ক্লোনের ওই পরীক্ষার সঙ্গে সঙ্গে আরও একটি বিষয় নিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছিল। আর তা হলো, কৃত্তিম উপায়ে মানবসন্তান প্রজননের ক্ষেত্র তৈরি করা। পুরুষের শুক্রাণুকে দীর্ঘবছর সংরক্ষণ করে রাখা এবং নির্দিষ্ট সময়ে তার ব্যবহার করে নতুন মানবসন্তানের জন্ম দেয়াই ছিল ওই গবেষণার মূল লক্ষ্য। জার্মানির বিজ্ঞানীরা এই কাজে কতটা এগিয়েছে তা জানা যায়নি আর, তবে ডেনমার্কের আরহুস অঞ্চলের ক্রাইয়স ইন্টারন্যাশনাল ভবনে আছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় শুক্রাণু ব্যাংক।

 

সম্প্রতি আলোকচিত্রী লারকে পস্সেল্ট দুই দিনের একটি কাজ নিয়ে যান ডেনমার্কের ওই শুক্রাণু ব্যাংকে। লারকে ওই ভবনে প্রবেশের আগ পর্যন্ত যে খুব বেশি কিছু জানতেন এই বিষয়ে তা নয়। তিনি প্রথমেই যে জিনিসটি জানতে পারলেন তা হলো, ক্রাইয়স ইন্টারন্যাশনাল এখন পর্যন্ত ৮০টিরও বেশি দেশে বোতলভর্তি শুক্রাণু পাঠিয়েছে এবং ২৭ হাজারেরও বেশি শিশু জন্মগ্রহন করেছে ওই শুক্রাণুর মাধ্যমে। যারাই ক্রাইয়স ইন্টারন্যাশনালে শুক্রাণু জমা দিতে আসেন তাদেরকে ১৫ থেকে ৭৬ ডলার পর্যন্ত দেয় হয়। অপরদিকে এই ব্যাংকটি প্রতি বোতল শুক্রাণু ৪৫ থেকে ১,১৩৭ ডলারে পর্যন্ত বিক্রি করে। তবে দাম বেশি হবে না কম হবে সেটা নির্ভর করে শুক্রাণু দাতার চরিত্রের উপর।

শুক্রাণু নিয়ে ব্যবসা নিঃসন্দেহে অনেক বড় ব্যবসা, কিন্তু এটা এখনও অনেক গোপনীয়তার সঙ্গেই করা হয়। আরহুসের মানুষ যদি জানতে পারে যে, ওই ব্যাংকটি তাদেরই শহরের কোথায় তাহলে নিশ্চিত যে তারা সেই বিষয়ে কোনো কথাই বলবে না। কিন্তু লারকে দেখলেন, ক্রাইয়স ইন্টারন্যাশনালে যারা চাকরি করছেন তারা সবই পেশাদার এবং তারা প্রত্যেকেই তাদের কাজটি করতে সিদ্ধহস্ত। শুধু তাই নয়, শুক্রাণু দিতে আসা ডোনারদের সঙ্গেও অনেক ভালো ব্যবহার করেন তারা, যাতে সামাজিকভাবে এটা নিয়ে কোনো সমস্যার সৃষ্টি না হয়।

 

কথায় কথায় এই শুক্রাণু ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ওলে শেখু সাবলীলভাবেই ছবি তোলার জন্য লারকের সামনে দাড়িয়ে যান। ওলে শেখু এবং অন্যান্যদের কাছে শুক্রাণু নিয়ে কাজ করা খুবই নিত্যনৈমেত্তিক ব্যাপার। আমাদের কাছে বিষয়টি যতটাই দূরবর্তী, এই বিষয়টা তাদের কাছে ঠিক ততটাই নিকটবর্তী। কারণ প্রতিদিনই তারা শুক্রাণু নিয়েই কাজ করেন। তাদের কাজের সময় প্রচণ্ড সতর্ক থাকতে হয়, কারণ তাদের একটু ভুলের কারণে হয়তো অন্য কারও জীবনে সন্তান না হবার মতো বিপর্যয় নেমে আসতে পারে।

শুক্রাণু ব্যাংকের ধারণাটি যে প্রথম ডেনমার্ক থেকেই শুরু হয়েছে তা নয়। মূলত সারোগেটেড সন্তানদের ধারণা থেকেই এই শুক্রাণু ব্যাংক প্রতিষ্ঠার চিন্তা আসে। কিন্তু শুরু থেকেই এই ধারণাটির বিরুদ্ধে অনেক আলোচনা সমালোচনা চলছে। অধিকাংশ ধর্মাবলম্বীর কাছেই এটা ভীষণ অপরাধের বিষয় হিসেবে বিবেচিত হয়। এমনকি উন্নত মহাদেশ ইউরোপের খ্রিস্টান সমাজেও আজ অবধি শুক্রাণু প্রতিস্থাপন করে সন্তান উৎপাদনের বিষয়টি স্বীকৃতি পায়নি। যদিও আমাদের আলোকচিত্রী লারকে এই পুরো প্রক্রিয়াটির পেছনে মানবিকতাপূর্ণ বিজ্ঞানকেই দেখতে এবং দেখাতে চেয়েছেন।

 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের উম্মুক্ত বাজেট ঘোষণা •আমতলীতে ৫ বিশিষ্ট ব্যক্তির স্মরণ সভা। •পরমাণু বিজ্ঞানী এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী কাল • (জ্যাক) এর বিজ্ঞপ্তি , সাংবাদিক গাজী রহমত উল্লাহ. বহিস্কার •শোক সংবাদ গোলাম মোস্তফা • ঝিনাইদহে খালার সঙ্গে অভিমানে স্কুল শিক্ষার্থীর বিষপানে আত্মহত্যা •শৈলকুপায় আবারো বাবা-মাকে মারধর ও খেতে না দেওয়ায় উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের •আমতলীতে সহকারী কমিশনার নাজমুল আলমের দুটি বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document