/* */
   Wednesday,  Dec 19, 2018   5 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

সাংবাদিকদের জন্য হাজিরা খাতা(!) খুললো বাংলাদেশ ব্যাংক।

তারিখ: ২০১৬-০৪-১১ ০০:৫৯:২২  |  ২৫৪ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ লুটের সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই সাংবাদিকদের সঙ্গে এক প্রকার বৈরি আচরণ শুরু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রথমে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা, পরে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ শেষে নতুন সার্কুলার জারি করে এবার সাংবাদিকদের জন্য হাজিরা খাতা(!) খুললো বাংলাদেশ ব্যাংক।

রোববার থেকে এই আদেশ কার্যকর করার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন গভর্নর ফজলে কবির।

বাংলাদেশ ব্যাংকের  গর্ভনর ভবনে সাংবাদিকদের প্রবেশ করার ক্ষেত্রে হেল্প ডেস্কে রক্ষিত রেজিস্ট্রার খাতায় সাংবাদিকদের নাম, মিডিয়া প্রতিষ্ঠানের নাম, সময় ও মোবাইল নম্বর লিখে স্বাক্ষর দিতে হয়। এরপরে হলুদ রঙের একটি পাশ দেওয়া হয় সাংবাদিকদের। এই পাশ দিয়ে গভর্নর ভবনের সবফ্লোরে যেতে পারেন সাংবাদিকরা। ব্যাংক থেকে বের হওয়ার সময়ে পাশটি লিফটের সামনে রাখা একটি বাক্সে ফেলে দিত হয়।

কিন্তু নতুন সার্কুলার অনুযায়ী, এখন থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময়ে পুণরায় সেই রেজিস্ট্রার খাতায় সময় লিখে স্বাক্ষর করতে হবে। প্রবেশের সময় দেওয়া পাশটি পূর্বের বাক্সের পরিবর্তে হেল্প ডেস্কে জমা দিতে হবে। এটিকে রসিকতা করে হাজিরা খাতা(?) হিসেবে মন্তব্য করছেন সাংবাদিকরা।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ভবনে কোন সাংবাদিক কতক্ষণ অবস্থান করেন, সে হিসাব বের করা ও সাংবাদিকদের ওপর নজরদারি বাড়ানোর জন্যই এই আয়োজন করা হয়েছে। এ কাজ করতে নতুন গভর্নরকে প্ররোচিত করেছেন কয়েকজন শীর্ষ কর্মকর্তা। যাতে করে গভর্নরের সম্পর্কে সাংবাদিকদের মনে নেতিবাচক ধারণা ও তার সঙ্গে বৈরি সম্পর্ক তৈরি হয়।

বাংলাদেশের সবচেয়ে স্পর্শকাতর ও গুরুত্বপূর্ণ সরকারি প্রতিষ্ঠান হল সচিবালয়। এখানে প্রবেশেও সাংবাদিকদের ব্যাপারে এমন আচরণ করা হয় না। সাংবাদিকদের জন্য অস্থায়ী ও স্থায়ী ভিত্তিতে পাশের ব্যবস্থা করা হয়েছে সচিবালয়ের পক্ষ থেকে। প্রবেশ পথে শুধু পাশ দেখালেই হয়। বের হওয়ার সময়ে পাশ দেখানোর প্রয়োজন হয়না। বাংলাদেশ ব্যাংকের এমন সিদ্ধান্ত নজীর বিহীন বলে মনে করছেন সাংবাদিকরা।

নতুন গভর্নর দায়িত্ব নেওয়ার পরদিনই বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিক প্রবেশে অলিখিত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। পরে অর্থনীতি বিটের সাংবাদিকদের সংগঠন ইকোনোমিক রির্পোটার্স ফোরামের(ইআরএফ) সভাপতি সাইফ ইসলাম দিলাল, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান, দৈনিক ফিনান্সিয়্যাল এক্সপ্রেসের বিশেষ সংবাদদাতা সিদ্দিক ইসলাম, সাংবাদিক নেতা শেখ আবদুল্লাহ বৈঠক করেন ডেপুটি গভর্নর-৩ এস কে সুর চৌধুরীর সঙ্গে।

এ বৈঠকের পরদিন থেকেই সাংবাদিকরা সাদা রঙের পাশ পায়। যা দিয়ে গভর্নর ভবনের ৩য় তলায় প্রবেশ করা যাবে না। চাপের মুখে এর কয়েকদিন পরে পুনরায় সাংবাদিকরা হলুদ পাশ ফিরে পায়। রিজার্ভ লুটের সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর থেকে সাংবাদিকদের ব্যাপারে একেক সময়ে একেক নিয়ম চালু করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•আইপিইউ এসেম্বলী শেষে জেনেভা থেকে দেশে ফিরলেন স্পিকার •কলাপাড়ায় টিয়াখালী ইউনিয়নের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষনা ॥ •নবম ওয়েজ বোর্ডের কার্যক্রম শুরু •খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ •ফিলিপাইনে ঝড়ের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৩ •শেখ হাসিনাকে ‘বোন’ ডাকলেন হুন সেন •কবিসংসদ বাংলাদেশ-এর ২৯৯তম সাহিত্যসভা অনুষ্ঠিত •বার্মায় মুসলিম বিরোধী এক উগ্র বৌদ্ধ ভিক্ষুর কথা
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document