/* */
   Saturday,  Jun 23, 2018   00:24 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •নাশকতার মামলায় শেখ হাসিনা উইমেন্স কলেজের প্রভাষক গ্রেফতার। •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা
Untitled Document

বাণিজ্য বৃদ্ধিতে আগ্রহী কুয়েত-বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা

তারিখ: ২০১৬-০৫-০৬ ০১:২৯:৫৫  |  ২৪০ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

ডেস্ক রিপোর্ট     বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্প্রসারণে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ এবং কুয়েতের শীর্ষ ব্যবসায়ীরা। 

 ঢাকার একটি হোটেলে এক মতবিনিময় সভায় কুয়েত চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (কেসিসিআই) বাণিজ্য প্রতিনিধিদল এবং ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) নেতারা এ আগ্রহের কথা জানান। সভায় দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য উন্নয়ন ও ব্যবসায়িক যোগাযোগ বাড়াতে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। 

উল্লেখ্য, কুয়েতের প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে কুয়েতের এই ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করছে।

বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান উন্নয়ন, বর্ধনশীল প্রবৃদ্ধি এবং কর্মক্ষম তরুণ জনগোষ্ঠীর বিষয়টি উল্লেখ করে সভায় এফবিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) কুয়েতের ব্যবসায়ীদেরকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আহ্বান জানান। 

তিনি বাংলাদেশে রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলসহ জ্বালানি, অবকাঠামো, থিম পার্ক, ফ্যাশনশিল্প ও অন্যান্য খাতে বিনিয়োগ এবং যৌথ বিনিয়োগ করতে কুয়েতের ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান। এ ছাড়া বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য কুয়েতের ভিসা পদ্ধতি সহজীকরণ, কুয়েতের বাজারে বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার এবং কুয়েত ও বাংলাদেশের ব্যবসায়ী সংগঠনের মধ্যে ‘যৌথ বিজনেস কাউন্সিল’ গঠনের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন এফবিসিসিআইয়ের নেতারা। 

কেসিসিআইয়ের ভাইস চেয়ারম্যান ও কুয়েতের প্রাক্তন বাণিজ্যমন্ত্রী আব্দুল ওয়াহাব এম. আল ওয়াযান বলেন, ‘বাংলাদেশ ও কুয়েতের মধ্যে বাণিজ্য বৃদ্ধির যথেষ্ট সুযোগ আছে। বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা কুয়েতের বাজারে আরো বেশি পণ্য রপ্তানির উদ্যোগ নিতে পারে।’ এ ছাড়া তিনি কুয়েতের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদেরকে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান। কুয়েত বিনিয়োগের জন্য বর্তমানে সম্পূর্ণ উন্মুক্ত উল্লেখ করে তিনি বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের সে দেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

আব্দুল ওয়াহাব এম. আল ওয়াযানের নেতৃত্বে কুয়েতের বিভিন্ন খাতের ব্যবসায়ী নেতারা সভায় উপস্থিত ছিলেন। এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম এবং পরিচালকরা সভায় অংশ নেন।

উল্লেখ্য যে, ২০১৪-২০১৫ অর্থবছরে বাংলাদেশ কুয়েতে ১৭.১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে এবং কুয়েত থেকে ৮৫৯.৮৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য আমদানি করেছে। বাংলাদেশ কুয়েতে মূলত কৃষিজাত পণ্য, নিটওয়্যার ও হিমায়িত খাদ্যসহ অন্যান্য পণ্য  রপ্তানি করে থাকে।

 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ব্যাংকগুলোতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা এবং মান উন্নয়নের ওপর জোর দিয়েছেন ব্যবসায়ি নেতারা •২০২৪ সালের আগেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে বাংলাদেশ : এলজিআরডি মন্ত্রী •রিজার্ভ চুরির ঘটনায় আরসিবিসির বিরুদ্ধে মামলা করবে বাংলাদেশ ব্যাংক •একনেকে ১৩ প্রকল্পের অনুমোদন •ন্যূনতম ১৬ হাজার টাকা বেতন চান বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শ্রমিকরা •ভারত থেকে গরুর মাংস আমদানির প্রস্তাব নাকচ •কম্বোডিয়ার সঙ্গে ১০টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document