/* */
   Sunday,  Jun 24, 2018   8 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •আওয়ামী লীগের ইতিহাস মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস : প্রধানমন্ত্রী •জাতীয় উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করুন : রাষ্ট্রপতি •এমপি হোক আর এমপির ছেলে হোক কাউকে ছাড় নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী,আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল • তিন সিটিতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা •নাইজেরিয়ার জয়ে আর্জেন্টিনার স্বপ্ন বড় হলো •আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নানা কর্মসূচি •টেলিটকের ফোরজির জন্য অপেক্ষা আরো চার মাস
Untitled Document

ফিলিস্তিনের জনগণের সংগ্রাম ও স্বাধীনতার প্রতি বাংলাদেশের অকুণ্ঠ সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী

তারিখ: ২০১৬-১২-১১ ২৩:২১:০৪  |  ২৫৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

(বাসস): প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ফিলিস্তিনের জনগণের সংগ্রাম এবং স্বাধীনতার প্রতি বাংলাদেশের অকুন্ঠ সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করেছেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ সবসময়ই ফিলিস্তিনের জনগণের সংগ্রামকে সমর্থন করেছে এবং তা অব্যাহত থাকবে।’
আজ সন্ধ্যায় গণভবনে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. রিয়াদ এন. এ. মালকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এলে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।
বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলেন, ফিলিস্তিনের জন্য আমাদের হৃদয়ে বিশেষ জায়গা রয়েছে বলেও প্রধানমন্ত্রী এ সময় তাঁর মনোভাব ব্যক্ত করেন।
ড. মালকি তাঁর দেশ ফিলিস্তিনের প্রতি বাংলাদেশের অকুন্ঠ সমর্থনের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, আপনি (শেখ হাসিনা) সবসময়ই আমাদের দেশে ইসরাইলি নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার।
বাংলাদেশের এই সহযোগিতার জন্য ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সময় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তিনি ইসরাইলি দখলদার বাহিনীর ফিলিস্তিনি নারী ও শিশু হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে সবসময়ই উচ্চকন্ঠ।
বৈঠকে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরবিতে অনুবাদ করা ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ বইটির কিছু কপিও প্রধানমন্ত্রীর হতে তুলে দেন।
‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ আরবিতে অনুবাদ করে প্রকাশ করার পাশাপাশি বিভিন্ন আরব দেশগুলোতে পাঠানো হয়েছে উল্লেখ করে ফিলিস্তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অন্যান্য আরব দেশগুলোকেও বইটি তাদের দেশে প্রকাশের অনুরোধ জানিয়ে বলেছি প্রয়োজনে এজন্য আমরা কপি সরবরাহ করতে পারব’।
প্রধানমন্ত্রী এ সময় একটি বইয়ে স্বাক্ষর করে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের জন্য সেদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন এবং ড. মালকিকেও তাঁর স্বাক্ষর করা একটি বই উপহার দেন।
ফিলিস্তিনের পররাষ্টমন্ত্রী এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, তার দেশের জনগণও এই মহান নেতাকে অত্যন্ত সম্মান করে। বঙ্গবন্ধু জনগণের জন্য যা করেছেন তা অত্যন্ত বিরল।
ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সময় ফিলিস্তিনের কিংবদন্তী নেতা ইয়াসির আরাফাত এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বিশেষ বন্ধুত্বের কথা স্মরণ করে বলেন, তাঁদের মধ্যে বিশেষ বন্ধুত্ব ছিল এবং এখন এটা আমাদের দায়িত্ব এই সম্পর্কের প্রতি যত্নবান হওয়া এবং একে টিকিয়ে রাখা।
প্রধানমন্ত্রী এ সময় ইয়াসির আরাফাতের সঙ্গে একটি কনফারেন্সে সাক্ষাতের স্মৃতিচারণ করে বলেন, ‘তিনি (ইয়াসির আরাফাত) আমার কাছে জানতে চান- আমি কি শেখ মুজিবের কন্যা’।
ড. মালকি বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে কৃষি সহ অন্যান্য ক্ষেত্রে সহযোগিতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
তিনি এসয় ফিলিস্তিনের সশস্র বাহিনীর সদস্যদের বাংলাদেশের প্রশিক্ষণ প্রদানেরও উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন।
প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে স্পেনের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত এদোয়ার্দে ডি লেইগলেসিয়া ডেল রোজাল গণভবণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

এর আগে, গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করেন ঢাকায় স্পেনের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত এডুয়ার্ডো দ্য ল্যাইগ্লেসিয়া।
বৈঠককালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে সরকার বেসরকারি খাতকে উন্মুক্ত করেছে।
তিনি বলেন, দেশে ২৩টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল রয়েছে এবং আরো কয়েকটি তাদের কার্যক্রম শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে।
স্প্যানিস রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে সংবাদ মাধ্যমের বিদ্যমান স্বাধীনতার ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, দেশটিতে খুবই সক্রিয় গণমাধ্যম রয়েছে।
স্পেনের রাষ্ট্রদূত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কারা জীবন সম্পর্কে জানতে চান।
জবাবে বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতা জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য বছরের পর বছর কারাগারে কাটিয়েছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নৃশংস হত্যাকান্ডের পর নিজের দুর্ভোগের কথা উল্লেখ করেন এবং বলেন সামরিক শাসক জিয়াউর রহমান তাঁদেরকে দেশে ফেরার অনুমতি না দেয়ায় তিনি ও তাঁর ছোট বোন ছয় বছর নির্বাসনে ছিলেন।
তিনি বলেন, ‘নির্বাসন থেকে দেশে ফেরার পর আমাদেরকে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের ঐতিহাসিক বাড়িতে প্রবেশে বাধা দেয়া হয়।’
স্পেনের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানান, তারা ‘বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ স্প্যানিস ভাষায় প্রকাশ করতে যাচ্ছেন।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•২০২৪ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার উন্নয়ন পরিকল্পনা ‘মে ডিক্রি’ স্বাক্ষর পুতিনের •ইসরায়েলি সৈন্যকে চড় মেরে ঝড় তুলেছে ফিলিস্তিনি এক কিশোরী •মেক্সিকোর জন্যে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী বছর ২০১৭ •ইসরাইল-ফিলিস্তিন সমঝোতা প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করতে জাতিসংঘে রাশিয়ার আহবান •রোহিঙ্গা সংকটের টেকসই সমাধানে নমপেনের সহযোগিতা কামনা ঢাকার •মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে সম্মত •বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারী: “আঁর পোয়াইন্দার বাপ ইঞ্জিনিয়ার আছিল” •বাবা-মাকে ছাড়াই বাংলাদেশে তেরোশো রোহিঙ্গা শিশু
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document