/* */
   Monday,  Dec 10, 2018   12:16 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

রামগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই সরকারী সম্পত্তিতে ইমারত নির্মাণ

তারিখ: ২০১৭-০১-২২ ১২:৩৭:২৫  |  ২৫৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ঃ
পাকা ভবন নির্মাণের নিয়ম না থকলেও রামগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই একটি কুচক্রী মহল কর্তৃক বালুয়া চৌমুহনী বাজারের দক্ষিণে দরবেশপুর অংশে লীজ নেওয়া সরকারী জেলা পরিষদের খালপাড়ে অনৈতিকভাবে ইমারত নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সৃষ্ট ঘটনায় স্থানীয়ভাবে চরম সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।
শনিবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে ইমারত নির্মাণের সত্যতা পাওয়া গেলেও ইমারত নির্মাণকারী কাউকেই পাওয়া যায়নি। এ সময় ইমারত নির্মাণে অংশগ্রহণকারী শ্রমিকরা সহ স্থানীয় কয়েকজন জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মিজান সাহেব এ ইমারত নির্মাণ করছেন। সৃষ্ট বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন এবং থানা প্রশাসনকেও ম্যানেজ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান মিজানুর সাহেব জানান, চৌমুহনী বাজারের ওই অংশটি তার ইউনিয়নে পড়লেও তিনি তা জানেন না। মিথ্যে মিথ্যি তার নাম ভাঙ্গানো হয়েছে। অন্য একটি সূত্র জানায়, দরবেশপুর ইউনিয়নের চৌধুরী মিয়ার জামাতা ওই ইমারত নির্মাণ করছেন। উক্ত খালপাড় জেলা পরিষদ থেকে তারা লীজ নিয়েই তা করা হচ্ছে। এ সময় চৌধুরী মিয়া ও তার জামাতার খোজ করা হলেও কেউ তাদের ঠিকানা জানেননা বলে জানিয়েছেন। বিষয়টি তড়িৎ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আবু ইউসুফ’কে জানানো হলে তিনি ঘটনাস্থলে লোক পাঠাচ্ছেন বলে জানান। দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা পরও ওই স্থানে উপজেলা প্রশাসনের কোন লোক না পৌছায় পূনরায় তার মুঠো ফোনে কল দিলে ইউ এনও’র সহকারী আনোয়ার হোসেন জানান, আপনারা জেলা পরিষদকে জানান। স্যার গাড়ি নিয়ে বাহিরে আছেন। সর্বশেষ বেলা ১ টা ৪৫ মিনিটে ইউএনও’র মুঠো ফোনে কল দিলে তিনি আর রিসিভ করেননি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাকা ইমারত নির্মাণের কাজ দ্রুত গতিতে চলছিল।
           


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•ভাঙ্গায় ডাক্তারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ •কলাপাড়ায় জমির সীমানা নির্ধারনকে কেন্দ্র করে ভাই ভাই সংঘর্ষ,আহত ১ ॥ •নাশকতার মামলায় শেখ হাসিনা উইমেন্স কলেজের প্রভাষক গ্রেফতার। •কলাপাড়ায় ইউপি মেম্বারসহ দুইজন গ্রেফতার ॥ ৩৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার •কলাপাড়ায় মাদকসহ তিন জন অটক ॥ •তালতলীতে মাদক সহ আটক দুই •লন্ডনে হাইকমিশনের ওপর হামলা বাংলাদেশের ওপর হামলার সমতুল্য : পররাষ্ট্রমন্ত্রী •ঝিনাইদহে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর কর্তৃক ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document