/* */
   Tuesday,  Jun 19, 2018   05:06 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশের ঢাকায় কিভাবে কাটে তরুণীদের অবসর সময়? •রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •বাংলাদেশের উপকূলের কাছে রাসায়নিক বহনকারী জাহাজে আগুন •ঈদের যুদ্ধবিরতিতে অস্ত্র ছাড়াই কাবুলে ঢুকলো তালেবান যোদ্ধারা •বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ঢাকা মহানগরীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত •জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়
Untitled Document

আমতলীর পশ্চিম চিলা গ্রামের রিপন সিকদারের জায়গা দখলে নেওয়ার জন্য দুই শতাধিক ফলের গাছ কেটে ফেলল প্রতিপক্ষ

তারিখ: ২০১৭-০১-৩১ ০০:২১:০৯  |  ১৫১ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।
বরগুনার আমতলীর পশ্চিম চিলা গ্রামের রিপন সিকদারের জায়গা দখলে নেওয়ার জন্য তার চাচা আমিরুল সিকদারের বিরুদ্ধে লোকজন নিয়ে রবিার বিকেলে দুই শতাধিক ফলের গাছ কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, হলদিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম চিলা গ্রামের রিপন সিকদার ২০১৩ সালে তার চাচা ধলু সিকদারের নিকট থেকে ১০ শতাংশ জায়গা ক্রয় করে কবলা সূত্রে মালিক হন। মালিকানার পরপরই ওই জায়গায় একটি মাছের ঘের করে মাছ চাষ করেন এবং ঘেড়ের পাড়ে আম, লেবু পেয়ার, কলা, নারিকেল, কাঁঠালসহ বিভিন্ন প্রজাতির ফলের গাছ লাগান। রিপনের আরেক চাচা আমিরুল সিকদার ওই জায়গা তার দাবী করে রবিবার বিকালে ১০-১৫ জন সন্ত্রসী লোক ভাড়ায় এনে ঘেড়ের পারে রিপনের লাগানো ৫ থেকে ৬ ফুট উচ্চতার আম, কাঠাল, নারিকেল, পেয়ারা, লেবু কলাগাছসহ দুই শতাধিক ফলের গাছ ঘন্টাব্যাপি তান্ডব চালিয়ে দা ছেনা দিয়ে কেটে ঘেড়ের পানিতে নিক্ষেপ করে। আলামত নিশ্চিহ্ন করার জন্য অনেক গাছের গোড়াসহ তুলে ফেলা হয়। ভয়ে এসময় রিপনের লোকজন ঘড় থেকে বের হয়নি। লাউ এবং সিমের গাছ গোড়াসহ তুলে ঝাকা ভেঙ্গে ঘেড়ের পানিতে ফেলে দেন। এছাড়া ঘেড়ে থাকা প্রায় ৫ হাজার টাকা মূল্যের মাছ ওষুধ ছিটিয়ে ধরে নিয়ে যাওয়ারও অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
রিপন সিকদার বলেন, তার বড় চাচা ধলু সিকদারের নিকট থেকে ২০১৩ সালে ১০ শতাংশ জায়গা ক্রয় সূত্রে মালক হয়েছেন। মালিকানার পর ওই জায়গায় ঘেড় করে মাছ চাষ করেছি। অহেতুক বিরোধ সৃষ্টির জন্য তার আরেক চাচা আমিরুল সিকদার জোরপূর্বক ওই জায়গা দখলে নেওয়ার জন্য ১০-১৫ জন সন্ত্রসিী লোক ভাড়ায় এনে রবিবার বিকেলে প্রায় দুই শতাধিক ফলের গাছ কেটে ফেলে এবং ঘেড়ের মাছ ধরে নিয়ে যায়। এসময় হামলার ভয়ে আমরা ঘড় থেকে বের হইনি। অভিযুক্ত আমিরুল সিকদারের সাথে যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি। তার মেয়ে রুমা বেগম গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে বিরোধীয় ওই জায়গা তাদের দাবী করেন। আপনাদের জায়গা হলে কেন গাছ কেটেছেন এ প্রশ্নের কোন উত্তর দিতে পারেনি রুমা। স্থানীয় বয়েজেষ্ঠ্য আজাহার সিকদার বলেন, ‘বাবা মোর জম্মেও এরহম তান্ডব দেহি নাই’। আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: সহিদ উল্লাহ জানান, ফলের গাছ কাটার অভিযোগে রবিবার রাতে মোতাহার সিকদার বাদী হয়ে থানায় অভিেেযাগ দাখিল করেছে। এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•আমতলীর আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের উম্মুক্ত বাজেট ঘোষণা •আমতলীতে ৫ বিশিষ্ট ব্যক্তির স্মরণ সভা। •পরমাণু বিজ্ঞানী এম এ ওয়াজেদ মিয়ার ৯ম মৃত্যুবার্ষিকী কাল • (জ্যাক) এর বিজ্ঞপ্তি , সাংবাদিক গাজী রহমত উল্লাহ. বহিস্কার •শোক সংবাদ গোলাম মোস্তফা • ঝিনাইদহে খালার সঙ্গে অভিমানে স্কুল শিক্ষার্থীর বিষপানে আত্মহত্যা •শৈলকুপায় আবারো বাবা-মাকে মারধর ও খেতে না দেওয়ায় উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের •আমতলীতে সহকারী কমিশনার নাজমুল আলমের দুটি বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document