/* */
   Friday,  Jun 22, 2018   05:31 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •সিসিলিতে ৫২২ অভিবাসী নিয়ে ইতালির উপকূলরক্ষী জাহাজের অবতরণ •সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড সম্পর্কে তুলে ধরতে গণমাধ্যমের প্রতি তথ্য সচিবের আহ্বান •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •সৌদি আরবকে হারিয়ে রাশিয়াকে নিয়ে শেষ ষোলোতে উরুগুয়ে •গণভবনে মহিলা ক্রিকেটারদের প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা •প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরে গঠিত হতে পারে : ওবায়দুল কাদের
Untitled Document

মৃত্যুর অনুমতি চাওয়া পরিবারটিকে চিকিৎসার প্রস্তাব ভারতীয় হাসপাতালের, চীনেরও আগ্রহ

তারিখ: ২০১৭-০২-০৭ ০০:২৭:৫০  |  ২৩৩ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

(বাঁ থেকে) রায়হানুল (১৩), সৌরভ (০৮) এবং সবুর (২৪)। এরা সবাই বিরল এক মাসকুল্যার ডিসট্রোফিতে আক্রান্ত

বাংলাদেশের মেহেরপুরে দীর্ঘদিন ধরে দূরারোগ্য রোগে ভুগতে থাকা পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুর অনুমতি চেয়ে চিঠি লিখে সাড়া ফেলে দেয়া তোফাজ্জেল হোসেনের দুই ছেলে এবং নাতির বিনামূল্যে চিকিৎসা দেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে ভারতীয় একটি হাসপাতাল।

ভারতের মুম্বাইয়ে অবস্থিত নিউরোজেন ব্রেইন অ্যান্ড স্পাইন ইন্সটিটিউট প্রাথমিকভাবে এই প্রস্তাব দিয়েছে।

চীনেরও একটি দল এবিষয়ে মি. হোসেনের সাথে যোগাযোগ করতে চেয়েছেন বলে জানান তিনি। তবে তাদের সাথে এখনো বিস্তারিত কথা হয়নি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খবরটি দেখে ভারতীয় হাসপাতালের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয় মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক নূর খানের সঙ্গে।

মি. খান বলেন, সংবাদ সংস্থা এএফপির একটি প্রতিবেদন ব্রিটিশ পত্রিকা গার্ডিয়ানে প্রকাশিত হলে ঐ প্রতিবেদনে তার একটি মন্তব্য দেখে নিউরোজেনের পক্ষ থেকে তার সাথে যোগাযোগ করা হয়।

"তারা আমাকে ফোন করে এবং তোফাজ্জল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করার বিষয়ে সাহায্য চায়। পরে ইমেইলে তাদের কাছে মি. হোসেনের পরিবারের রোগাক্রান্ত সদস্যদের প্রেসক্রিপশনসহ চিকিৎসার কাগজপত্র পাঠানো হয়েছে। তারা চাইছে এই মানুষগুলোকে বিনামূল্যে চিকিৎসা করতে"।

রোগীদের যাতায়াতের খরচ বহন করার বিষয়েও ইমেইলে আগ্রহ দেখিয়েছে মুম্বাইয়ের ঐ চিকিৎসাকেন্দ্র।

  তোফাজ্জেল হোসেনের লেখা আবেদন পত্রের একাংশ

গত ১৯শে জানুয়ারি মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক বরাবর একটি চিঠি পাঠান তোফাজ্জেল হোসেন, যেখানে দুরারোগ্য 'মাসকুল্যার ডিসট্রোফি' বা মাংসপেশিতে পুষ্টির অভাবজনিত অসুখে আক্রান্ত দুই ছেলে ও এক নাতির মৃত্যুর অনুমতি প্রার্থনা করেন তিনি।

তিনি জানান, তার ২২-বছর বয়সী বড় ছেলে চলৎশক্তি হারিয়েছেন, ১৩ বছর বয়সী ছেলে এবং ৭ বছর বয়সী নাতিও দিন দিন অসুস্থ হয়ে পড়ছে।

বিবিসির সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, গণমাধ্যমে তার পাঠানো চিঠির সংবাদ প্রকাশ হবার অনেকে চিকিৎসায় সাহায্য করতে চেয়েছেন।

চীনের একটি দলও তার সাথে দেখা করতে চেয়েছে, যারা চীনে তার পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসা করা যায় কিনা সেই চেষ্টা করে দেখছেন।

বাংলাদেশেও হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকদের একটি দল বর্তমানে চিকিৎসায় সহযোগিতা করছেন বলে জানান মি. হোসেন।

"তাদের জন্য সবচেয়ে ভালো চিকিৎসা যেখানে হয়, সেখানেই তাদের চিকিৎসা করাবো", বলেন মি. হোসেন।

ভারতের যে চিকিৎসাকেন্দ্র বিনামূল্যে চিকিৎসার আগ্রহ প্রকাশ করেছে, তারা মূলত: স্টেম সেল বা ভ্রুণ কোষের মাধ্যমে চিকিৎসার ক্ষেত্রে ভারতের নেতৃত্বস্থানীয় একটি হাসপাতাল।বিবিসি


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•স্বেচ্ছায় খালের স্থাপনা ভেঙ্গে নেয়ায় ২২ ভূমিহীনসহ ৩৫ পরিবারকে পুনর্বাসনের উদ্যোগ •আমতলীতে লঞ্চের দাবীতে মানববন্ধন •আমতলীতে ফরমালিন যুক্ত আম জব্দ ৪ হাজার টাকা জরিমানা •কুড়িগ্রামের রৌমারীতে সরিষা ক্ষেত থেকে এবার ১০ কোটি টাকার মধু উৎপাদন হবে •বাংলাদেশের চট্টগ্রামে ৫০ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার দুইজন সেনা সদস্য •কলাপাড়ায় নির্যাতনের শিকার এক গৃহকর্মী হাসপাতালে কাতরাচ্ছে ॥ •ঝিনাইদহে জমকালো আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত •ঝিনাইদহে চালকের মাথায় হেলমেট নেই, ৬০ মোটর সাইকেল চালকের বিরুদ্ধে মামলা
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document