/* */
   Thursday,  Dec 13, 2018   03:37 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

মিয়ানমারে ফিরে যাচ্ছে অল্প কিছু রোহিঙ্গা, বলছেন কর্মকর্তারা

তারিখ: ২০১৭-০২-২০ ০০:৩৬:৩২  |  ২৬৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

কুতুপালং শিবিরের একটি রোহিঙ্গা পরিবার

মিয়ানমারের সেনা অভিযান থেকে রক্ষা পেতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা মুসলিমদের মধ্যে কেউ কেউ সম্প্রতি আবার দেশে ফিরে যাচ্ছেন, বলছেন কর্মকর্তারা।

গত দু সপ্তাহে একটি ক্যাম্প থেকে শ পাঁচেক রোহিঙ্গা শরণার্থী মিয়ানমারে ফিরে গেছে বলে ক্যাম্পেরই একজন বাসিন্দা বলেছেন। যদিও কক্সবাজার এলাকায় আশ্রয় নেয়া হাজার হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম পরিবারের তুলনায় এ সংখ্যা অতিশয় নগন্য।

কিন্তু কর্মকর্তারা বলছেন, আন্তর্জাতিক নাফ নদীর ওপারে রাখাইন রাজ্যের সহিংস পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়ে আশায় গত এক সপ্তাহ ধরে তারা এই প্রবণতাটি লক্ষ্য করছেন।

কক্সবাজারের কুতুপালংয়ে একটি অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দীর্ঘ দিনের বাসিন্দা আবু সিদ্দিক বলছেন, গত দুই সপ্তাহে তাদের ক্যাম্প থেকে শ পাঁচেক রোহিঙ্গা শরণার্থী মিয়ানমারে ফিরে গেছে।

   টেকনোফের একটি শরণার্থী শিবির

গত অক্টোবর মাস থেকে এই ক্যাম্পটিতে এসে এখন পর্যন্ত এসে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীর সংখ্যা ত্রিশ হাজারের বেশী।

মি. সিদ্দিক বলছেন, "মূলত যেসব পুরুষেরা পরিবারের অন্য সদস্যদের মিয়ানমারে রেখে পালিয়ে এসেছিল তারাই ফিরে যাচ্ছে। এদের একটা ধারণা হয়েছে, সেখানে পরিস্থিতি এখন শান্ত হয়েছে, তাদের পরিবারের সদস্যরা সেখানে রয়ে গেছে এবং তাদের সহায় সম্পত্তি আছে, সেগুলোর খোঁজ খবর করতেই তারা যাচ্ছে"।

টেকনাফে বিজিবির কমান্ডার লে. কর্নেল আবুজার আল জাহিদ বিবিসিকে বলেন, সম্প্রতি রাখাইন প্রদেশে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়ে আসার প্রেক্ষাপটে অনেক রোহিঙ্গা ফিরছেন।

তবে কি পরিমাণ ফেরত যাচ্ছে তার সঠিক পরিসংখ্যন নেই।

অবশ্য বাংলাদেশের দৈনিক প্রথম আলো আজ তাদের এক খবরে বলেছে প্রায় তিনশর মতো রোহিঙ্গা এখন পর্যন্ত স্বেচ্ছায় মিয়ানমার ফিরে গেছে বলে তারা জানতে পেরেছে।

তবে ফেরৎ যাওয়ার একটি প্রবণতা পরিলক্ষিত হবার কথা স্বীকার করছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক আলী হোসেন।

তিনি বলছেন, সপ্তাহখানেক ধরে এই প্রবণতাটা তারা দেখছেন। তবে এই সংখ্যাটা একেবারেই নগণ্য, উল্লেখ করার মত নয়। তিনিও রাখাইনের পরিস্থিতি শান্ত হওয়াকে কারণ বলে উল্লেখ করেন।

তবে কক্সেসবাজারের সাংবাদিক তোফায়েল আহমেদের বক্তব্যে উঠে আসছে দ্বিতীয় একটি কারণ।

তিনি মনে করেন, রোহিঙ্গাদেরকে ঠেঙ্গারচরে পাঠানোর যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশের সরকার সেটি অনেক রোহিঙ্গার মনঃপুত না হওয়ায় তারা ফিরে যাচ্ছে।

মি. আহমেদ বলেন, তারা নাফ নদীর দুই পাড়ে বসবাস করে অভ্যস্ত।

'ওপারে কিছু হলে তারা এপারে চলে আসে, আর এপারে কিছু হলে তারা ওপারে চলে যায়। ঠেঙ্গারচরে পাঠিয়ে দিলেতো আর সেটা করা যাবে না। এজন্য কেউ কেউ ফিরে গেছে হয়তো'।

  পালিয়ে আসা একটি রোহিঙ্গা পরিবার

কিন্তু যেতে চাইলেই তো যাওয়া যায় না।

মিয়ানমারে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছেন এমন একজন বাংলাদেশী কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করবার শর্তে বিবিসিকে বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে যে বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গারা শরণার্থী ফিরতে পারছে, তেমনটি তার মনে হয় না।

সেখানে সেনা অভিযান বন্ধ হলেও সৈন্যরা সেখানে সতর্ক অবস্থানেই রয়েছে।

বাংলাদেশে চলে আসা রোহিঙ্গারা সেখানে ফিরুক তারা সেটা চায় না, তাদের প্রতিহত করতেও তারা সচেষ্ট, বলছিলেন এই কর্মকর্তা।

এমনকি, রোহিঙ্গারা যাতে আর ঢুকতে না পারে এজন্য ভবিষ্যতে সীমান্তে একটি দেয়াল তোলা যায় কি না, তা নিয়েও রাখাইনের পার্লামেন্টে আলোচনা হচ্ছে।

কিন্তু এরকম কড়াকড়ির মধ্যেও হাতে গোণা কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা ফিরে যেতে পারছে, সাংবাদিক তোফায়েল আহমেদের ভাষায়, সীমান্তরক্ষীদেরকে 'ম্যানেজ' করার মাধ্যমে।বিবিসি


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে শোক রাষ্ট্রপতির •আগামী নির্বাচনে সকল দল অংশ নেবে : প্রধানমন্ত্রী •শ্রেষ্ঠ বিট অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন কলাপাড়া থানার এস আই নাজমুল ॥ •রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে ঢাকায় বিশ্ব নেতারা •মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপান ৩৪ কোটি টাকার অনুদান দেবে •বিপন্ন রোহিঙ্গারা স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা পাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী •নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচিতে বিশ্ব ব্যাংকের অতিরিক্ত ২৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদানের চুক্তি স্বাক্ষর মঙ্গলবার •রাষ্ট্রের তিন বিভাগের মধ্যে ঐক্যের আহ্বান রাষ্ট্রপতির
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document