/* */
   Saturday,  Dec 15, 2018   03:46 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফকে কি গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে?

তারিখ: ২০১৭-০৭-০১ ০০:৪২:৩৩  |  ১২৭ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফকে (ডানে) সরিয়ে নতুন ক্রাউন প্রিন্স করা হয়েছে প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানকে (বাঁয়ে)

সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফকে কি গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে?

নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত এক রিপোর্টে এরকম দাবি করা হলেও একজন উর্ধ্বতন সৌদি কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছেন, এই খবর "ভিত্তিহীন।"

মাত্র এক সপ্তাহ আগেও প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ ছিলেন সৌদি আরবের দ্বিতীয় ক্ষমতাধর ব্যক্তি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্বে পাশাপাশি তিনি ছিলেন 'ক্রাউন প্রিন্স', অর্থাৎ বাদশাহ সালমানের পর তাঁরই পরবর্তী বাদশাহ হওয়ার কথা।

কিন্তু হঠাৎ করেই তাকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। তাঁর জায়গায় 'ক্রাউন প্রিন্স' করা হয় বাদশাহ সালমানের ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানকে।

প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ দীর্ঘদিন সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র সহ পশ্চিমা দেশগুলোর তিনি ছিলেন খুবই আস্থাভাজন। কারণ সৌদি আরবে আল কায়েদার নেটওয়ার্ক ভেঙ্গে দেয়ার ক্ষেত্রে তিনি বড় ভূমিকা রেখেছিলেন।

ছবির কপিরাইট  প্রিন্স নায়েফকে গৃহবন্দী করার খবর অস্বীকার করছে সৌদি আরব

প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ বর্তমান বাদশাহ সালমানের ভাই। কিন্তু গত দুবছর ধরেই সৌদি আরবে এমন কানাঘুষো ছিল যে বাদশাহ সালমানের ছেলে প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে তার সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। বাদশাহ সালমান সমস্ত ক্ষেত্রে তাঁর ছেলেকেই প্রাধান্য দিচ্ছিলেন।

কাজেই বাদশাহ সালমান গত সপ্তাহে যখন হঠাৎ করে প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফকে সব গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে সরিয়ে দিলেন, সেটা অনেককে অবাক করলেও একদম অপ্রত্যাশিত ছিল না।

নিউ ইয়র্ক টাইমস তাদের রিপোর্টে বিভিন্ন সৌদি সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করছে, মোহাম্মদ বিন নায়েফকে সৌদি আরব থেকে বেরুতে দেয়া হচ্ছে না এবং তাঁকে নিজের বাড়িতে আটকে রাখা হয়েছে।

সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ এক সূত্রকে উদ্ধৃত করে রিপোর্টে আরও বলা হয়, মোহাম্মদ বিন সালমানকে পদোন্নতি দিয়ে 'ক্রাউন প্রিন্স' করার পরপরই মোহাম্মদ বিন নায়েফের ওপর এসব বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়।

  যুক্তরাষ্ট্র সহ পশ্চিমা দেশগুলোর খুবই আস্থাভাজন ছিলেন প্রিন্স নায়েফ

নিউ ইয়র্ক টাইমসের রিপোর্ট অনুযায়ী, ঐ ঘোষণার পর পরই মোহাম্মদ বিন নায়েফ তার প্রাসাদে ফিরে আসেন। তিনি দেখেন তার বিশ্বস্ত প্রাসাদ রক্ষীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তার জায়গায় প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের অনুগত রক্ষীদের সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে।

তবে একজন সৌদি কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, এই খবরটি একদম সত্য নয়। প্রিন্স নায়েফ তার বাড়িতে অতিথিদের আপ্যায়ন করে যাচ্ছেন এবং তাঁর বা তাঁর পরিবারের সদস্যদের গতিবিধির ওপর কোন নিয়ন্ত্রণ নেই।"

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফকে গৃহবন্দী করে রাখার খবরটি সম্পর্কে তারা অবগত কিন্তু এই খবরটি সত্য কিনা সে বিষয়ে তারা কোন মন্তব্য করবে না।বিবিসি


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতি জোনে সরকারি বাহিনীর হামলায় ২২ বিদ্রোহী নিহত •রোহিঙ্গা সংকট: মিয়ানমারে এখনও সহিংসতা ও গণহত্যা চলছে বলে দাবি করছে জাতিসংঘ •জামাল খাসোগজি হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে সর্বশেষ সৌদি ভাষ্য: হত্যা নয়, অপহরণই ছিল উদ্দেশ্য •ভারতে ঘূর্ণিঝড় তিতলিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৭ হয়েছে •ইয়েমেনে ৫২ লাখ শিশু দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে •মগজ ধোলাই হয়ে উগ্রপন্থী হয়েছিল আমার ছেলে' - বলছেন ওসামা বিন লাদেনের মা •কলম্বিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়ার মাঝে ‘অব্যাহত নিরাপত্তাহীনতায়’ নিরাপত্তা পরিষদের উদ্বেগ .
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document