/* */
   Monday,  Dec 17, 2018   06:04 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

কলাপাড়ায় পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্ত্রীকে মারধর

তারিখ: ২০১৭-০৭-২২ ০০:৫৪:৫৭  |  ১৪৯ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

 
কলাপাড়া প্রতিনিধি ॥ কলাপাড়ায় পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্ত্রীকে বেধরক মারধর করেছে স্বামী সজিব হাওলাদার। শুক্রবার সকালে গুরুতর আহত অবস্থায় স্ত্রী জান্নাত আক্তার (২১)কে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের বানাতীবাজার সংলগ্ন কলনী এলাকায়। মোবাইলে পরকীয়া করতে বাঁধা দেওয়াতে তার উপর এমন নির্যাতান করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আহত জান্নাত।
আহত জান্নাতের পরিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ বছর পূর্বে ধুলাসার ইউনিয়নের চর চাপলী গ্রামের হতদরিদ্র ইব্রাহিম মৃধার একমাত্র জান্নাতের সাথে বিয়ে হয় পাশর্^বর্তী বালিয়াতলী ইউনিয়নের বানাতীবাজার সংলগ্ন কলনীর রুহুল আমিন হাওলাদারের ছেলে সজিবের সাথে। বিয়ের পর সংসার জীবন খুব ভালই চলছিল। এরই মাঝে জান্নাতের কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে এক বছর বয়সের পুত্র সন্তান জাহিম। এর পরই তার স্বামী জরিয়ে পরে পরকীয়ায়। এ নিয়ে প্রায়ই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকতো। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার বিকালে দু’জনের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে জান্নাতকে বেধরক মারধর করে। খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে পরিবারের লোকজন গিয়ে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসে।
কলাপাড়া হাপাতালের আবাসিক মেডিকেল আফিসার ডাক্তার জে এইচ খান লেলীন সাংবাদিকদের জানান, শরীরে তেমন বড় কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
আহত জান্নাতের মা মিনারা বেগম জানান, তার স্বামী শ্রমজিবী। মেয়ে সুখের কথা চিন্তা করে বিয়ের সময় জামাইকে নগত ৩৫ হাজার টাকা, স্বর্নালংকারসহ যাবতিয় মালামাল দেয়া হয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর তাদের সংসার ভালই ছিল। সন্তান জন্মের পর থেকেই তার মেয়ে জিন্নাতের উপর নির্যাতন শুরু করে। বিষয়টি তাদের চেয়ারম্যানকে জানানো হয়েছে ।
ধুলাসার ইউনিয় পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আব্দুল জালিল জানান, এর আগেও এ ঘটনা নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে শালিসির মাধ্যমে মিমাংশা হয়েছে। তবে মারধরের বিষয়টি আমার পরিষদের এক সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে সত্যতা পেয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।
কলাপাড়া থানার ডিউটি অফিসার এ এস আই হবিব জানান, এ বিষয়ে আমাদের কাছে কোন অভিযোগ আসেনি। তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•মনোনয়নপত্র বাতিলে হাওলাদারের আপিল খারিজ •যতবার নারায়ণগঞ্জ জেগেছে, ততবার বাংলাদেশ জেগেছে। নারায়ণগঞ্জ থেকে অনেক আন্দোলন হয়েছে। শামীম ওসমান এম পি •টঙ্গীবাড়িতে চাঁদা না দেওয়ায় সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত ২ •সংবাদ সম্মেলন . পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি কর্তৃক গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •কলাপাড়ায় স্লুইস সংস্কার ও রাস্তা মেরামতের দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন। •চোরাই মালমাল ও চুরির কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামসহ চিহ্নিত চোর মনির আটক ॥ •শিবচরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮ উদযাপন উপলক্ষ্যে মূল্যায়ন,পুরষ্কার বিতরন ও সমাপনী অনুষ্ঠান
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document