/* */
   Wednesday,  Jun 20, 2018   11:27 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •বাংলাদেশের ঢাকায় কিভাবে কাটে তরুণীদের অবসর সময়? •রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮: ইতিহাসের বিচারে কে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে •বাংলাদেশের উপকূলের কাছে রাসায়নিক বহনকারী জাহাজে আগুন •ঈদের যুদ্ধবিরতিতে অস্ত্র ছাড়াই কাবুলে ঢুকলো তালেবান যোদ্ধারা •বিশ্বব্যাংক প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নে ৭শ’ মিলিয়ন ডলার দেবে •ঢাকা মহানগরীতে ৪০৯টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত •জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতির ঈদের নামাজ আদায়
Untitled Document

১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড রদ করতে সৌদি বাদশাহর কাছে দশ নোবেল পুরস্কার বিজয়ীর খোলা চিঠি

তারিখ: ২০১৭-০৮-১২ ১৮:৫০:০৩  |  ২১৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

সৌদি আরবের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

১৪ জন শিয়ার মৃত্যুদণ্ড রোধ করার আহ্বান জানিয়ে সৌদি আরবের কাছে এক খোলা চিঠি লিখেছেন দশ জন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী।

সৌদি আরবের শিয়া অধ্যূষিত পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ কাটিফে এক শিয়া বিদ্রোহের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ আনা হয়। সহসাই এদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মৃত্যুদণ্ড রদ করার আহ্বান জানিয়ে সৌদি বাদশাহ সালমানের কাছে লেখা খোলা চিঠিতে যারা সই করেছেন তাদের মধ্যে আছেন আর্চবিশপ ডেসমন্ড টুটু, ইরানের মানবাধিকার কর্মী শিরিন এবাদি এবং পূর্ব টিমুরের সাবেক প্রেসিডেন্ট জোসে রামোস হোর্তা।

চিঠিতে তারা বাদশাহ সালমানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এদের প্রতি অনুকম্পা প্রদর্শনের জন্য।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ অভিযোগ করছে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত এই ১৪ জনের কাছ থেকে সৌদি কর্তৃপক্ষ জোর করে স্বীকোরোক্তি আদায় করে এবং তাদের কোন রকমের ন্যায্য বিচার পাওয়ার সুযোগ দেয়া হয়নি।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১৪ জনের একজন হচ্ছে মুজতাবা আল সোয়েইকা। ১৮ বছর বয়সী মুজতাবা যখন ২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্টার্ন মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার জন্য রওনা হচ্ছিলেন, তখন তাকে রিয়াদ বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের একটি হচ্ছে ফেসবুকে একটি গ্রুপ খুলে বিক্ষোভের ছবি শেয়ার করা।

ছবির কপিরাইট  নিমর আল নিমরকে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়

আরেকজন আলী আল নিমর এর বিরুদ্ধে অভিযোগ নানা হয়েছে ব্ল্যাকবারিতে একই রকম গ্রুপ খুলে বিক্ষোভের ছবি দিয়ে লোকজনকে বিক্ষোভে যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানানো।

উল্লেখ্য সৌদি আরব হচ্ছে বিশ্বের সেই সব দেশের অন্যতম যেখানে ব্যাপক হারে লোকজনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।

সৌদি আরবের সুপ্রিম কোর্ট গত জুলাইতে এই ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখে। তবে সৌদি বাদশাহ বা যুবরাজ এই মৃত্যুদন্ড অনুমোদন করলেই কেবল তা কার্যকর করা হবে।

১৪ জনের সবাই কাটিফ প্রদেশে বিক্ষোভের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ আনা হয়। সৌদি আরবের এই প্রদেশটিতে দীর্ঘদিন ধরে শিয়াদের মধ্যে অসন্তোষ এবং বিক্ষোভ চলছে।

২০১১ সালে এই প্রদেশের আওয়ামিয়া শহরে আরব বসন্তের বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল। এতে নেতৃত্ব দেয়া শিয়া নেতা নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড গত বছর কার্যকর করা হয়। তার বিরুদ্ধে 'সন্ত্রাসবাদে'র অভিযোগ আনা হয়েছিল।বিবিসি


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•২০২৪ সাল পর্যন্ত রাশিয়ার উন্নয়ন পরিকল্পনা ‘মে ডিক্রি’ স্বাক্ষর পুতিনের •ইসরায়েলি সৈন্যকে চড় মেরে ঝড় তুলেছে ফিলিস্তিনি এক কিশোরী •মেক্সিকোর জন্যে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী বছর ২০১৭ •ইসরাইল-ফিলিস্তিন সমঝোতা প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করতে জাতিসংঘে রাশিয়ার আহবান •রোহিঙ্গা সংকটের টেকসই সমাধানে নমপেনের সহযোগিতা কামনা ঢাকার •মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে সম্মত •বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারী: “আঁর পোয়াইন্দার বাপ ইঞ্জিনিয়ার আছিল” •বাবা-মাকে ছাড়াই বাংলাদেশে তেরোশো রোহিঙ্গা শিশু
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document