/* */
   Wednesday,  Sep 26, 2018   3 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

রামগঞ্জে গ্রাম্য চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় ফারুকের মৃত্যুর অভিযোগ॥

তারিখ: ২০১৭-০৮-১৫ ২০:৪৭:২১  |  ১৯৯ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

 
রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ
রামগঞ্জ পৌরশহরের নন্দনপুর গ্রামে ঔষধ (গ্রাম্য চিকিৎসক) ভুল চিকিৎসায় ফারুক হোসেন (২৭) নামের এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফারুক হোসেন জেলার রামগঞ্জ পৌর নন্দনপুর গ্রামের চৌকিদার বাড়ীর আবদুল খালেক মিয়ার ছেলে।
জানা যায়, রবিবার সকালে ফারুক হোসেনের মাথা ও ঘাড় ব্যথা দেখা দিলে ঘরের লোকজন বাড়ীর পাশ্ববর্তি সিয়াম মেডিসিন কর্নারের মালিক ও গ্রাম্য চিকিৎসক আজিজুর রহমান সোহাগকে খবর দিলে তিনি অসুস্থ্য ফারুককে একটি ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করেন। পরে ফারুকের শারিরীক অবস্থার আরো অবনতি হলে চিকিৎসক সোহাগ জানান, তার হয়তো ব্রেনষ্ট্রোক হয়েছে। তাকে অন্যত্রে নিতে হবে।
নিকটাত্মীয়রা তাকে দ্রুত রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে আসলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হসপিটালে রেফার করার কথা বলে। পরে রামগঞ্জ ফেমাস হসপিটালে দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা চিকিৎসা দেয়ার পরও অবস্থার কোন উন্নতি না হওয়ায় হসপিটালের কর্তব্যরত চিকিৎসকও তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্রে নিয়ে যাওয়ার জন্য বললে তার নিকটাত্মীয়রা তাকে ঢাকায় নেয়ার পথে অবস্থা আরো অবনতি হলে পথিমধ্যে তাকে কুমিল্লা সেন্ট্রাল হসপিটালে ভর্তি করলে  রবিবার বিকাল  ৬.৩০ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
ফারুকের সাথে থাকা তার জেঠাতো ভাই মোঃ শহিদ জানান, সকালে ফারুকের মাথা ও ঘাড় ব্যথা হলে আমরা ডাক্তার সোহাগকে ডেকে আনি।
ফারুক হোসেনের বাবা আবদুল খালেক জানান, আমার ছেলের মাথা ও ঘাড় ব্যথা হলে তাকে বাড়ীর পাশ্ববর্তি সোহাগ ডাক্তারকে ডেকে আনি, কিন্তু ডাক্তার চিকিৎসার দেয়ার পর আমার ছেলে অসুস্থ্য হয়ে গেলে তাকে কুমিল্লা নেয়ার পর হসপিটালে সে মারা যায়। চিকিৎসক জানান, তার ব্রেনস্ট্রোক হয়েছে।
তবে স্থানীয় বেশ কয়েকজন লোক ও তার বেশ কয়েকজন বন্ধুরা জানান, ফারুক হোসেনের মাথা ব্যথার সমস্যা ছিলো দীর্ঘসময় ধরে। প্রায়ই সে মাথা ব্যথার জন্য ইঞ্জেকশন গ্রহন করতো।
এব্যপারে সিয়াম মেডিসিন কর্ণারের মালিক আজিজুর রহমান সোহাগকে তার ব্যক্তিগত মোবাইলে ফোন দিলে তিনি জানান, আমি তাকে দেখেই বলেছি তার বড় ধরনের কোন সমস্যা হয়েছে। আমি ব্যথার জন্য ট্যাবলেট ও একটি ইঞ্জেকশন দিয়ে পরিবারের লোকদের বলি তাকে উন্নত চিকিৎসা দেয়ার দরকার। ফারুক হোসেন তিন বোনের মধ্যে মেঝ ভাই। এবং তার
সন্তানসম্ববা স্ত্রী রয়েছেন বলে জানা যায়।

 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•ভাঙ্গায় ডাক্তারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ •কলাপাড়ায় জমির সীমানা নির্ধারনকে কেন্দ্র করে ভাই ভাই সংঘর্ষ,আহত ১ ॥ •নাশকতার মামলায় শেখ হাসিনা উইমেন্স কলেজের প্রভাষক গ্রেফতার। •কলাপাড়ায় ইউপি মেম্বারসহ দুইজন গ্রেফতার ॥ ৩৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার •কলাপাড়ায় মাদকসহ তিন জন অটক ॥ •তালতলীতে মাদক সহ আটক দুই •লন্ডনে হাইকমিশনের ওপর হামলা বাংলাদেশের ওপর হামলার সমতুল্য : পররাষ্ট্রমন্ত্রী •ঝিনাইদহে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর কর্তৃক ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document