/* */
   Saturday,  Dec 15, 2018   03:23 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

আমতলীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানি প্রতিবাদ করায় মেয়েসহ মামাকে মারধর

তারিখ: ২০১৭-১০-২৫ ০১:০২:১৮  |  ২৯৫ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

 
আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।।
ছুটি শেষে বাড়ি ফেরার পথে আমতলীর সোহরাওয়ার্দী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সীমা আকতার নামে এক নবম শ্রেণির স্কুল ছাত্রীর পথ আগলে যৌন হয়রানি করার প্রতিবাদ করায় মেয়েসহ মামা হেলাল গাজীকে মার ধর করে দুই বখাটে যুবক বাচ্চু আকন (১৮) ও রিয়াজ আকন (২০)। এ ঘটনা ঘটে সোমবার দুপুর ১টার সময় স্থানীয় কৃষ্ণ নগর গ্রামের বারেক ডাক্তারের খালি ভিটার সামনে।
প্রত্যাক্ষ দর্শী ও বিদ্যালয় সুত্রে জানা গেছে, আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের সোহরাওয়ার্দী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ভোকেশনাল শাখার ছাত্রী  হলদিয়া ইউনিয়নের রাওঘা গ্রামের দুধল খার মেয়ে সীমা আকতার সোমবার দুপুর ১টার সময় বিদ্যালয় ছুটি শেষে বাড়ি ফিরছিল। মেয়েটি স্থানীয় কৃষ্ণ নগর গ্রামের বারেক ডাক্তারের খালি ভিটার সামনের সড়কে  পৌছা মাত্র একই ইউনিয়নের কৃষ্ণ নগর গ্রামের সোহরাব আকনের  বখাটে ছেলে বাচ্চু আকন (১৮) ও নাসির আকনের বখাটে ছেলে রিয়াজ আকন (২০) তার পথ রোধ করে দারায়। এবং তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। সীমা আকতার তাদের প্রস্তাবে সারা না দেওয়ায় দুই বখাটে যুবক বাচ্চু আকন ও রিয়াজ আকন তাকে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল শুরু করে এবং তার পরনের কাপর  খুলে ফেলার হুমকি দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে এর প্রতিবাদ করে মেয়েটির মামা হেলাল গাজী। এসময় দুই বখাটে ক্ষিপ্ত হয়ে হেলাল গাজী ও সীমা আক্তারের উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে তারা হেলাল গাজী  ও সীমা আকতারকে কিল ঘুষি লাথি মেরে রাস্তার উপর ফেলে বেদম মার ধর করে। এসময় সীমা ও হেলালের ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে তাদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা করান। এ নিয়ে ওই দিন বিকেল ৫টায় বিদ্যালয়ের লাইব্রেরীতে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের বিদুৎসাহী সদস্য গাজী মো: দেলোয়ার হোসেন ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুস ছালামের নেতৃত্বে এক সালিস বৈঠক বসে। বৈঠকে দুই বখাটে বাচ্চু আকন ও রিয়াজ আকনকে ২০ ঘা জুতা পেটা করে ছেরে দেওয়া হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন গ্রাম বাসী  খোব প্রকাশ করে এ প্রতিনিধিকে জানান, এ ধরনের ঘটনায় আইনের হাতে তুলে না দিয়ে শুধু জুতা পেটার মধ্যে দিয়ে দুই বখাটের শাস্তি দেওয়ায় বিচার সম্পন্ন হয়নি। স্থানীয় জয়নাল গাজী জানান, বখাটে বাচ্চু ও রিয়াজ আগেও এধরনের ৩-৪ টি ঘটনা ঘটিয়েছে। কোন ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হয়নি। কয়েকজন প্রভাব শালীর ছত্র ছায়ায় এরা বার বার পার পেয়ে যাচ্ছে। আমরা এ ঘটনার কঠিন শাস্তি দাবী করছি। মেয়েটির বাবা মো: দুধল খা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এর সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন।  বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আব্দুস ছালাম সীমার পথ আগলে যৌন হয়রানি মেয়েটিকে মারধর এবং প্রতিবাদ কারী হেলাল গাজীকে মারধরের ঘটনা এবং জুতা পেটার  ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। আমতলী থানার ওসি তদন্ত মো: নুরুল ইসলাম বাদল জানান, ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•যোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর এমপিও ভুক্তির কাজ চলছে : নাহিদ •রাজৈরে স্কুল নির্বাচন সম্পন্ন •আমতলী উপজেলায় প্রাথমিকের ৮০টি প্রধান শিক্ষকের পদ খালি, শিক্ষার বেহাল দশা •ছাত্র বৃত্তি সঠিকভাবে বিতরণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর •বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীদের জন্য ইশারা ভাষা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হবে : মেনন •ঝিনাইদহে এবার স্কুল ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে এনে হত্যাচেষ্টা •ঝিনাইদহ জেলা শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদ সভা
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document