/* */
   Monday,  Dec 17, 2018   10:30 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান •মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ •মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার •নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পকে ‘রাজনৈতিক’ সহযোগিতার প্রস্তাব দেয় রাশিয়া •টেকনোক্রেট কোন মন্ত্রী কেবিনেটে থাকছেন না : ওবায়দুল কাদের •বেগম রোকেয়া দিবস কাল •আগামীকাল থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ . বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ
Untitled Document

শ্রেণীকৃত ব্যাংক ঋণ ৮০ হাজার ৩০৭ কোটি টাকা : অর্থমন্ত্রী

তারিখ: ২০১৮-০২-০৮ ১৮:২৪:৫৬  |  ১২৩ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

  অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, গত বছর সেপ্টেম্বর ভিত্তিক ত্রৈমাসিকে সমগ্র ব্যাংকিং সেক্টরে শ্রেণীকৃত ঋণের পরিমাণ ছিল ৮০ হাজার ৩০৭ কোটি টাকা এবং এর বিপরীতে আদায়ের পরিমাণ ছিল ৩ হাজার ১১০ কোটি টাকা বা শতকরা ৩ দশমিক ৮৭ ভাগ।
তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য এম আবদুল লতিফের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, ব্যাংকিং খাতে খেলাপী ঋণ আদায় পরিস্থিতি উন্নয়ন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সরকার খেলাপী গ্রাহক চিহ্নিতকরণ এবং তাদেরকে আইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।
মুহিত বলেন, খেলাপী ঋণসমূহের আদায়ের লক্ষ্যে সরকার ইতোমধ্যেই অর্থ ঋণ আদালত আইন ২০০৩ প্রণয়ন করেছে। ওই আইনের আওতায় খেলাপী ঋণ আদায়ের লক্ষ্যে খেলাপী গ্রাহকদের বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে।
অর্থমন্ত্রী বলেন, এছাড়া ইতোপূর্বে প্রণয়নকৃত দেউলিয়া আইন ১৯৯৭ এর আওতায় খেলাপী গ্রাহকদের বিরুদ্ধে মামলা করার মাধ্যমে খেলাপী ঋণ আদায় করা হচ্ছে। খেলাপী ঋণ আদায়ের গুরুত্ব বিবেচনায় বাংলাদেশ ব্যাংক ইতোমধ্যেই ব্যাংকসমূহকে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করেছে।
তিনি বলেন, প্রতি ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে শ্রেণীকৃত ঋণ স্থিতি, শ্রেণীকৃত ঋণের বিপরীতে আদায় পরিস্থিতি, ঋণ অবলোকন, প্রভিশন সংরক্ষণ ও নতুন ঋণ আদায় বিষয়ে একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন ব্যাংকের বোর্ড সভায় উপস্থাপন করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, শ্রেণীকৃত ও অবলোপনকৃত ঋণ আদায়ের দায়েরকৃত মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে অভিজ্ঞ আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে।
মুহিত বলেন, ‘বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তি’ (এডিআর)-এর মাধ্যমে শ্রেণীকৃত ঋণ আদায়ে পরিস্থিতির উন্নতির প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে হবে এবং প্রয়োজনবোধে অর্থ ঋণ আদালতসহ সংশ্লিষ্ট আদালতে মামলা দায়ের করে উপযুক্ত আইনজীবী নিয়োগ দিতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার কর্তৃক প্রণীত বিভিন্ন আইনের পাশাপাশি উপর্যুক্ত নির্দেশনাসমূহও খেলাপী ঋণ আদায়ে কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।(বাসস) :


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •বাংলাদেশে গার্মেন্ট শ্রমিকরা চান ১২ হাজার, মালিকরা দিতে চান এর অর্ধেক •সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবে : তোফায়েল •জুলফিকার আজিজ সিপিএ চেয়ারম্যান নিযুক্ত •বাংলাদেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে কম্বোডিয়ার ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর •অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশী পণ্য রপ্তানি বাড়লে উভয় দেশের বাণিজ্য অনেক বাড়বে বলে জানালেন তোফায়েল •চাল ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে ঝিনাইদহে চালের বাজার অস্থির, দিনমজুর ও মধ্যবিত্তদের নাভিশ্বাস!
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document