/* */
   Thursday,  Jul 19, 2018   01:44 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার সংস্থা সবরকম সহায়তা করবে : আইওএম মহাপরিচালক •মন্ত্রিসভায় মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক খসড়া আইন অনুমোদিত •নির্বাচন কোন অপরাধীর মুক্তির দরকষাকষির বিষয় হতে পারে না : ইনু •পুতিনের সাথে বৈঠককে ‘অত্যন্ত চমৎকার সূচনা’ বলে অভিহিত করলেন ট্রাম্প •বাংলাদেশে গার্মেন্ট শ্রমিকরা চান ১২ হাজার, মালিকরা দিতে চান এর অর্ধেক •কুয়াকাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সহ-সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় কলাপাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্য বুলেট ও মিরনকে ফুলেল শুভেচ্ছা ॥ •দোয়া মোনাজাত ও দুস্থ প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাবার বিতরন ॥ কলাপাড়ায় বঙ্গবন্ধু সমাজ কল্যান পরিষদের অভিষেক ॥
Untitled Document

বাংলাদেশ-থাইল্যান্ড কৃষি সহযোগিতা জোরদারের আহবান প্রধানমন্ত্রীর

তারিখ: ২০১৮-০৬-০১ ০২:২৮:২০  |  ৩৩ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বাংলাদেশ এবং থাইল্যান্ডের মধ্যে কৃষি খাতে সহযোগিতা জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
থাই রাজকুমারী মাহা চাকরি সিরিনধম সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তাঁর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে গেলে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।
বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং থাই রাজকুমারী মূলত, কৃষি খাত নিয়েই আলোচনা করেন এবং এই খাতে দ্ইু দেশের সহযোগিতা বৃদ্ধির বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।
খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণে সহযোগিতার বিয়য়েও বৈঠকে আলোচনা হয়।
থাই রাজকুমারী বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচি বিশেষ করে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প এবং ক্ষুদ্র সঞ্চয় কর্মসূচির ভূয়সী প্রশংসা করেন।
বাংলাদেশের কৃষি খাতের সাফল্য তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ দেশের বিজ্ঞানীরা খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য লবণাক্ততা, বন্যা এবং ক্ষরাসহিষ্ণু প্রজাতির ধান উদ্ভাবন করেছে।
তিনি থাই রাজকুমারীকে বলেন, বাংলাদেশ স্বাদু পানির মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে এবং ছাগল, গরু এবং ভেড়া থেকে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণে মাংস উৎপাদন করছে।
প্রধানমন্ত্রী এ সময় আম চাষে দু’দেশের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন, কারণ থাইল্যান্ড বছর জুড়ে আম উৎপাদনে বিখ্যাত।
থাই রাজকুমারী প্রধানমন্ত্রীকে জানান, তাঁর দেশ একটি প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশকে ‘ভেটিভার ঘাস’ দিচ্ছে। এই ঘাস আকারে লম্বা ও পুরু এবং যা মাটির ক্ষয়রোধ ও সুরক্ষায় কার্যকরী।
বাংলাদেশের মওসুমী ফল লিচু থাইল্যান্ডে খুব জনপ্রিয় এবং থাইল্যান্ড বাংলাদেশ থেকে লিচু আমদানি করছে বলে জানান থাই রাজকুমারী।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, থাইল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাঈদা মুনা তাসনীম এবং ঢাকায় থাই রাষ্ট্রদূত প্যানপিমন সুয়ান্নাপোংসে এ সময় উপস্থিত ছিলেন।(বাসস):


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার সংস্থা সবরকম সহায়তা করবে : আইওএম মহাপরিচালক •অশুভ শক্তি সম্পর্কে সতর্ক থাকতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান •বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণে বাংলাদেশের মহাকাশ জয় সম্ভব হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী •রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় অব্যাহত সহযোগিতার আশ্বাস গুতেরেস, কিমের •প্রতিবেশীদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযেগিতার ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ •আওয়ামী লীগের ইতিহাস মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস : প্রধানমন্ত্রী •বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হবে : প্রধানমন্ত্রী •দেশের গণতন্ত্র এখন সুরক্ষিত : প্রধানমন্ত্রী
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document