/* */
   Tuesday,  Oct 23, 2018   05:53 AM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আগামীর নির্বাচনে তরুণদের কাছে ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী •জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে শিগগিরই ছোট হবে মন্ত্রিসভা : ওবায়দুল কাদের •জামাল খাসোগজি হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে সর্বশেষ সৌদি ভাষ্য: হত্যা নয়, অপহরণই ছিল উদ্দেশ্য •সংবাদ সম্মেলন . পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি কর্তৃক গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ •নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল •জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী •ভারতে ঘূর্ণিঝড় তিতলিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৭ হয়েছে
Untitled Document

ভাঙ্গায় ডাক্তারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ

তারিখ: ২০১৮-০৭-১৬ ২৩:১৯:৪২  |  ৫৮ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»

সুজন বেপারী, স্টাফ রিপোর্টার।
ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলাধীন ১০নং কালামৃধা ইউনিয়ন পরিবার ও পরিকল্পনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ডাক্তার অর বিন্দু বালার বিরুদ্ধে আর্থিক ও অনিয়মের দ্বায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। দীর্ঘদিন যাবত ডাক্তার অর বিন্দু বালা অফিস চলাকালীন সময়ে রোগীদের কাছ ফি বাবদ নগদ টাকা হাতিয়ে নেন। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান লিটন মাতুব্বর (লিটু) কাছে গরীব-দুঃখি,অসহায় মানুষ গিয়ে বিভিন্ন সময় অভিযোগ করেন। সে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান লিটন মাতুব্বর (লিটু) গন্যমান্য লোকজন নিয়ে হঠাৎ একদিন গিয়ে দেখতে পান। অফিস চলাকালীন সময়ে ফি বাবদ, রোগীদের কাছ থেকে টাকা গ্রহন করেন। ইউপি চেয়ারম্যান লিটন মাতুব্বর (লিটু) ডাক্তার অর বিন্দু বালাকে বলেন অফিস চলাকালীন সময় আপনি আর কোনদিন গরীব-দুঃখি, অসহায় মানুষের কাছ টাকা গ্রহন করবেন না। কিন্তু ডাক্তার অর বিন্দু বালা কারও কোন কথা কর্ণপাত করেন না। যার পরিপ্রেক্ষিতে জনগনের স্বার্থ ভেবে ইউপি চেয়ারম্যান লিটন মাতুব্বর (লিটু) পরিচালক পরিবার পরিকল্পনা বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন। যার প্রেক্ষিতে উপ-পরিচালক মোহাম্মাদ আলী সিদ্দিক ও ডাক্তর সানোয়ার হোসেন সহকারী পরিচালক ভাঙ্গা উপজেলা মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সাজ্জাদ হোসেন ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা অনাদি মজুমদার। কালামৃধা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স তদন্ত করেন। ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্যে স্থানীয় জনগন, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিকবৃন্দ,মুক্তিযোদ্ধাগন,ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক নেত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ইউপি সদস্য আলী আজগর বয়াতী বলেন, ডাক্তার অরবিন্দু বালাকে অফিস চলাকালীন সময়ে এসে তাকে পাওয়া যেত না। মহিলা সংরক্ষিত ইউপি সদস্য রাশিদা বেগম বলেন, ডাক্তার অরবিন্দু বালাকে অফিস চলাকালীন সময়ে যে, আগে টাকা দিত যতœ সহকারে চিকিৎসা দিতেন।ইউপি সদস্য সূর্যমিয়া বলেন, ডাক্তার অরবিন্দু বালা লোভী মানুষ, আমরা তার প্রতিকার চাই। বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল হক বেপারী বলেন, ডাক্তার অরবিন্দু বালার চিকিৎসা খুব নি¤œমানের এবং বেশিরভাগ সময়ে অফিস রেখে অন্যত্র সময় কাটান। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আসাদ খলিফা বলেন, অফিস চলাকালীন সময়ে ডাক্তার অরবিন্দু বালা টাকা ছাড়া কিছুই বুঝেন না।কালামৃধা বাজার বর্ণিক সমিতির সাধারন সম্পাদক লিন্টু আকন বলেন, ডাক্তার অরবিন্দু বালা অফিস চলাকালীন সময়ে বিভিন্ন কোম্পানীর প্রতিনিধির সাথে সময় কাটান। রোগীরা সেবা থেকে বঞ্চিত হয়। এলাকার বাসির জোর দাবি, ঘটনা সঠিক তদন্ত করে প্রকৃত দোষী বিভাগীয় আইনের আওতায় আনার জন্যে জোর দাবি করেন।


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•কলাপাড়ায় জমির সীমানা নির্ধারনকে কেন্দ্র করে ভাই ভাই সংঘর্ষ,আহত ১ ॥ •নাশকতার মামলায় শেখ হাসিনা উইমেন্স কলেজের প্রভাষক গ্রেফতার। •কলাপাড়ায় ইউপি মেম্বারসহ দুইজন গ্রেফতার ॥ ৩৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার •কলাপাড়ায় মাদকসহ তিন জন অটক ॥ •তালতলীতে মাদক সহ আটক দুই •লন্ডনে হাইকমিশনের ওপর হামলা বাংলাদেশের ওপর হামলার সমতুল্য : পররাষ্ট্রমন্ত্রী •ঝিনাইদহে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর কর্তৃক ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document