/* */
   Thursday,  Oct 18, 2018   3 PM
Untitled Document Untitled Document
শিরোনাম: •পবিত্র আশুরা উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : আছাদুজ্জামান মিয়া •বান্দরবানে কৃষি ব্যাংকের উদ্যোগে সিংগেল ডিজিট সুদে ঋণ বিতরণ •সৌদি আরবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রথম বিদেশ সফর •জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •রোহিঙ্গা বসতিতে কক্সবাজারের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে : ইউএনডিপি •মর্যাদার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি ভারত ও পাকিস্তান •সংসদে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল, ২০১৮ পাস
Untitled Document

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত.করতে ইসির চিঠি

তারিখ: ২০১৮-০৭-২০ ০০:৫৫:১১  |  ৭০ বার পঠিত

0 people like this
Print Friendly and PDF
« আগের সংবাদ পরের সংবাদ»
নিজস্ব প্রতিনিধি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করতে জেলা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) ইসি সচিবালয়ের সহকারী সচিব রওশন আরা বেগমের সই করা এই চিঠি জেলা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। ইতিমধ্যে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরু করেছে ইসি। এর অংশ হিসেবে আগামী ৫ আগস্টের মধ্যে নির্বাচনের জন্য খসড়া ভোটকেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মাঠ প্রশাসনকে।

ইসির পাঠানো চিঠিতে প্রস্তাবিত কেন্দ্র সম্পর্কে কারও কোনো অভিযোগ-আপত্তি বা দাবি থাকলে তা ৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী তফসিল ঘোষণার ২৫ দিন আগে ভোটকেন্দ্রের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব (চলতি দায়িত্ব) আবুল কাশেম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। চিঠিতে বলা হয়েছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা হবে ৪০ হাজার। এর মধ্যে সমতলে ৩৯ হাজার ৩৮৭টি এবং পার্বত্য এলাকায় ৬১৩ টি।

ভোটকেন্দ্রের নীতিমালায় বলা হয়েছে, গড়ে ২ হাজার ৫০০ ভোটারের জন্য একটি করে ভোটকেন্দ্র এবং গড়ে ৬০০ পুরুষ ভোটারের জন্য ও ৫০০ নারী ভোটারের জন্য একটি করে ভোট কক্ষ নির্ধারণ করতে হবে। বর্তমানে দেশে ভোটার ১০ কোটি ৪১ লাখ ৪২ হাজার ৩৮১ জন। এই হিসেবে সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত একতরফা নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ছিল ৯ কোটি ১৯ লাখ ৬৫ হাজার ১৬৭ জন। এসব ভোটারের জন্য ৩৭ হাজার ৭০৭টি ভোটকেন্দ্র ও এক লাখ ৮৯ হাজার ৭৮টি ভোট কক্ষ ছিল।

সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সংসদের মেয়াদ শেষ হবে আগামী বছরের ২৮ জানুয়ারি। নির্বাচন করতে হবে সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে। এই হিসেবে আগামী ৩১ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে সংসদ নির্বাচন করতে হবে। সে অনুযায়ী ইসি প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরু করেছে। ইতিমধ্যে নির্বাচনের ভোটার তালিকার সিডি তৈরি করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই নির্বাচনের জন্য চলতি বাজেটে ১ হাজার ৮৯৫ কোটি টাকার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

 


এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

•জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ •লন্ডনে গঠিত বঙ্গবন্ধুসহ চার নেতা হত্যার তদন্ত কমিশনকে বাংলাদেশে আসতে ভিসা দেয়া হয়নি •পুলিশের আধুনিকায়নে সরকার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে : আইজিপি •নির্বাচন কোন অপরাধীর মুক্তির দরকষাকষির বিষয় হতে পারে না : ইনু •ভারতে আটক বাংলাদেশি বাবা-মা থেকে যেভাবে বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হচ্ছে সন্তানদের •বাংলাদেশ কমনওয়েলথ ইসি সদস্য নির্বাচিত •রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত বিচারপতিদের সাক্ষাৎ
Untitled Document
  • সর্বশেষ সংবাদ
  • সবচেয়ে পঠিত
  • এক্সক্লুসিভ

Top
Untitled Document